মঙ্গলবার | ১১ই আগস্ট, ২০২০ ইং |

উন্নয়নের জন্য সরকারকে আরো ৫ বছর ক্ষমতায় রাখতে হবে: মেনন

পাবনা,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,শনিবার,২৩ জুন ২০১৮:
সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, বর্তমান সরকার আর পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকলে দেশের ভাবমূর্তি উন্নত দেশের কাছাকাছি পৌঁছে যাবে।

শনিবার সকালে পাবনা সদর উপজেলায় কমিউনিটি হেলথ ও হার্ট হাসপাতালের উদ্বোধনী সভায় সমাজকল্যাণমন্ত্রী একথা বলেন।

মেনন বলেন, বর্তমান সরকার যেভাবে ব্যাপক উন্নয়ন ঘটিয়ে যাচ্ছে। শহর থেকে গ্রাম সর্বত্র মানুষের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করছে, কৃষিক্ষেত্রে সেবা বৃদ্ধি করে যাচ্ছে।তথ্য প্রযুক্তির আধুনিকায়ন করছে, সামাজিক বেষ্টনি তৈরি করছে। ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দিচ্ছে তা অতীতের সকল উন্নয়ন রেকর্ডকে পেছনে ফেলে দিচ্ছে। তাই এই সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে কোনভাবেই ব্যাহত করা যাবে না। এ জন্যই বর্তমান সরকারকে আরো ৫ বছর ক্ষমতায় রাখতে হবে।

রাশেদ খান মেনন বলেন, বর্তমান সরকার দেশের স্বাস্থ্য খাতের গুরুত্ব সবসময়ই দিয়ে আসছে, যার উৎকৃষ্ট উদাহরণ হচ্ছে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে একের পর এক হাসপাতাল নির্মাণ। এই সরকারের জনসেবামূলক কর্মসূচি লোক দেখানো নয়, এটি সত্যিকারের একটি জনমুখী সরকার। এই সরকার যতবারই ক্ষমতায় এসেছে ততবারই এদেশের সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছে।

ঢাকা কমিউনিটি হাসপাতাল ট্রাস্টের উদ্যোগে এবং সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় যাত্রা শুরু করলো পাবনা কমিউনিটি হেল্থ এন্ড হার্ট হাসপাতাল। হৃদরোগ বিশেষায়িত হাসপাতাল পাবনায় এটাই প্রথম।

ঢাকা কমিউনিটি হাসপাতাল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর কাজী কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির, সিভিল সার্জন ডা. তাহাজ্জেল হোসেন, পাবনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. রিয়াজুল হক, ট্রাস্টের কো-অর্ডিনেটর মাহমুদুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য দেন হাসপাতালের উপদেষ্টা এস মুস্তাকিম সবুজ।

সভাপতির বক্তব্যে ঢাকা কমিউনিটি হাসপাতাল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর কাজী কামরুজ্জামান বলেন, আর্সেনিক দুষণ শনাক্তকরণসহ পাবনাবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় গত ৩০ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে এই হাসপাতাল। নবনির্মিত কমিউনিটি হেল্থ অ্যান্ড হার্ট হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এ অঞ্চলের জনগণ আধুনিক ও উন্নত চিকিৎসার সুযোগ পাবে।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *