সোমবার | ৩রা আগস্ট, ২০২০ ইং |

চাঁদপুরে করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি

এ কে আজাদ, ব্যুরো প্রধান, বর্তমানকন্ঠ ডটকম চাঁদপুর : চাঁদপুর জেলার মানুষের এখন থেকে আর কোভিড-১৯ তথা করোনাভাইরাস শনাক্তকরণে নমুনা পরীক্ষার রেজাল্ট পেতে চব্বিশ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে না। দিনের রেজাল্ট দিনেই পেয়ে যাবে। ১২ ঘণ্টার মধ্যেই নমুনা প্রদানকারীরা নিশ্চিত হয়ে যাবে তারা করোনায় আক্রান্ত কি না। আর সেটি সম্ভব হলো চাঁদপুরে কোভিড-১৯ শনাক্তকরণ পরীক্ষাগার উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে। শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি সোমবার এটি উদ্বোধন করেন। চাঁদপুর শহরের নতুনবাজারস্থ কদমতলা এলাকায় পৌর মার্কেটে ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের নামে বরাদ্দকৃত ফ্ল্যাটে এ পরীক্ষাগারটি স্থাপন করা হয়।

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ ও ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের যৌথ উদ্যোগে এ ল্যাবটি স্থাপিত হয়। সোমবার বিকেলে ফিতা কেটে এটির উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। উদ্বোধনী বক্তব্যে ডাঃ দীপু মনি বলেন, শুধু চাঁদপুর জেলা নয় পাশর্^বর্তী জেলর মানুষরা তাদের প্রয়োজনে এই ল্যাব ব্যাবহার করতে পারবেন। আমাদের এই করোনা পরি¯ি’তির সময়ে মানুষের যাতে ভোগান্তি কম হয় করোনা পরিক্ষার পর যথা সময়ে দ্রæত চিকিৎসা সেবা দিতে পারি সে জন্যই একটি ল্যাব থাকা মানুষের দাবী ছিল। আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করেছি, ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের মাধ্যমে চাঁদপুর মেডিকেল কলেজও আমাদের সাথে রয়েছে। আমাদেরকে আর টি পিসিআর মেশিনসহ নানারকমভাবে কারিগরি সহায়তা দিয়ে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে চট্টগ্রাম ভেটেরেনারি ও এনিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়। এ কাজে সকলের সহযোগিতার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। বিশেষভাবে কৃতজ্ঞ আমার প্রানপ্রিয় নেত্রী দেশরতœ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি। কারণ, সদর হাসপাতালে অক্সিজেন প্ল্যান্টটি করার কথা জানালে তখনই তিনি বলেছেন আর্থিক সহযোগিতা দেবেন তার সেই উৎসাহতেই আমি এই পিসিআর ল্যাব করার বিষয়টি চিন্তা করতে পেরেছি না হলে হয়ত সাহস করতে পারতামনা। এ সময় তিনি তাঁর বড়ভাই ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্সেস ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ডাঃ গৌতম বুদ্ধ দাশের অসামান্য অবদানের কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রীর বড়ভাই ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু তাঁর বক্তব্যে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তুলে ধরেন। তিনি তাঁর বক্তব্যে জানান, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের সহায়তায় চাঁদপুরে দশ বেডের আইসিইউ হতে যাচ্ছে। এর জন্যে জায়গাও দেখা হয়ে গেছে। এছাড়াও ওয়ার্ল্ড ব্যাংক আরো কিছু অর্থ দিবে চাঁদপুরের স্বাস্থ খাতে উন্নয়নের জন্যে। শুধু তাই নয়, চাঁদপুরের আড়াইশ’ বেডের হসপিটালের জন্যে দশতলা একটি ভবন হচ্ছে। এটি হাসপাতালের কাছাকাছি করাটাই হবে যুক্তিযুক্ত। যেহেতু বর্তমানে হাসপাতাল এরিয়ায় কোনো জায়গা নেই, সেজন্যে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পেছনে যে খাস জমিটি রয়েছে, সেটিই ভালো হবে বলে আমরা মনে করছি। ডাঃ টিপু চাঁদপুরে আড়াইশ’ বেডের হসপিটালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট এবং আরটি পিসিআর ল্যাব স্থাপনে শিক্ষামন্ত্রীর বন্ড মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় সে টাকা (২০ লাখ টাকা) এখানে ব্যয় করার তথ্য তুলে ধরেন। একই সাথে তাঁর নিজের অর্থ ব্যয়ের কথাও তিনি তুলে ধরেন। ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু এই করোনা টেস্টিং ল্যাবটিকে একটি পূর্ণাঙ্গ ল্যাবরেটরিতে রূপান্তরিত করার প্রতিশ্রæতি দেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্সেস ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ডাঃ গৌতম বুদ্ধ দাশ, চাঁদপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্লাহ, আড়াইশ’ শয্যাবিশিষ্ট চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত¡াবধায়ক ডাঃ হাবিব উল করিম, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গাজী মাঈনুদ্দিন, মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এমএ কুদ্দুছ, হাইমচর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) কাজী আব্দুর রহিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দা বদরুনানাহার চৌধুরী, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, অ্যাডঃ মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আলম মিল্টন প্রমুখ। উদ্বোধনী পর্ব শেষে শিক্ষামন্ত্রী অন্য অতিথিদের নিয়ে কোভিড-১৯ শনাক্তকরণ ল্যাব উদ্বোধন করেন।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *