মঙ্গলবার | ১১ই আগস্ট, ২০২০ ইং |

জমকালো আয়োজনে শুরু ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ভিডিও সহ

নিজস্ব প্রতিবেদক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭: প্রযুক্তি খাতে বিগত ৯ বছরের অর্জন ও চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে দেশের আগাম প্রস্তুতি উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে বৈশ্বিক আবহে শুরু হলো দেশের সবচেয়ে বড় প্রযুক্তি উৎসব- ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ১২টায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) চার দিনের উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট মানব সোফিয়ার সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, পৃথিবীর সঙ্গে এগিয়ে যেতে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন এখন আমাদের হাতের মুঠোয়। স্কুল শিক্ষা থেকে শুরু করে এখন জনসেবারর সব কিছুই চলে এসেছে তাদের দোরগোরায়।

<iframe width=”725″ height=”410″ src=”https://www.youtube.com/embed/vdbGY32V5nY” frameborder=”0″ gesture=”media” allow=”encrypted-media” allowfullscreen></iframe>প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের রিকশা চালক ও কৃষক সকলের হাতেই মোবাইল ফোন চলে গেছে। পৃথিবীর অন্য কোনো দেশে এতো মোবাইল ফোন ব্যবহার হয় বলে আমার জানা নেই। এতো কথাও কেউ বলে না। অবশ্য এটা ইতিবাচক। আর তারা আজ কেবল কথা বলায় নয়, মুঠোফোনে ব্যাংকিং কার্যক্রম ও নাগরিক সেবায় এটি ব্যবহার করছে।

তিনি বলেন, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে আমাদের দেশের ২০ লাখ মানুষ প্রযুক্তি পেশায় আসবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমার নাতি-পুতিরাই আজ বিশ্ব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় যোগ্য হয়ে উঠেছে। তাদের কাছে আমার আহ্বান, আগামী দিনের জন্য আমাদের সবসময় তৈরি থাকতে হবে।

নির্ধারিত বক্তব্যের শেষে সিঙ্গাপুরে প্রস্তুত ও সৌদি আরবের নাগরিকত্ব পাওয়া কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট সোফিয়ার সঙ্গে কথা বলেন। ট্রলির মতো উদ্বোধনী মঞ্চে নিয়ে আসা হয় হলুদ-ঘিয়ে সালোয়ার-সেমিজ পরিহিত বিশ্বের প্রথম রোবট নাগরিক সোফিয়াকে। হ্যালো বলে তাকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী। জবাবে ভালো জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নের জবাবে সোফিয়া বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মেয়ে হিসেবে আমি আপনাকে জানি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।

এসময় প্রধানমন্ত্রী জানান, তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের মেয়ের নামও সোফিয়া। এসময় উৎফুল্লতা সুচক করতালি দেয় উপস্থিত অতিথিরা। এর পরই তিনি মেলার উদ্বোধনের ঘোষণা দেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগেযোগ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইমরান আহমদে, বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিবের সুবীর কিশোর চৌধুরি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

এসময় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুসহ মন্ত্রিপরিষদের বেশ কয়েকজন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

দেশের তথ্যপ্রযুক্তির বর্তমান অবস্থা, স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে তুলে ধরতে পঞ্চমবারের মতো শুরু হওয়া এ উৎসবের প্রবেশ পথেই চমক দেখিয়েছে দেশীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। মেলা প্রাঙ্গনে তারা তুলে ধরেছে বাংলাদেশে প্রযুক্তি পণ্য ও সেবা উৎপাদনের উদ্যোগের কথা।

চারদিনের অনুষ্ঠানে প্রায় ৭০ জন বিদেশিসহ শতাধিক বক্তা ২৯টি সেশন রয়েছে। গুগল, নুয়ান্স, ফেসবুক, অ্যাংরিবার্ডস, কোয়ালকম, মটোরালাসহ শীর্ষ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা সেশনগুলোতে থাকছেন। এবারের ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে সফটওয়্যার, ই-গভর্নেন্স, মোবাইল ইনোভেশন, ই-কমার্স, স্টার্টআপ বাংলাদেশ, এক্সপেরিয়েন্স, মেইড ইন বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক জোন রয়েছে।চারদিনের এই আয়োজন শুরু হবে ৬ ডিসেম্বর। চলবে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *