বৃহস্পতিবার | ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং |

পরিবার বিচ্ছিন্ন মানুষের একবেলা খাবার খাওয়ালো কালীগঞ্জ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন ও ‘১ টাকায় জীবন’ সংগঠন

জাহিদুর রহমান তারিক, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, ঝিনাইদহ : করোনা ভাইরাস সারা বিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করেছে। লাখ লাখ মানুষ এ ভাইরাসে আক্রান্ত প্রান ও হারাতে হয়েছে হাজার হাজার মানুষের। এই ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আমাদের দেশেও অঘোষিত লকডাউন চলছে। আর এতে বিপাকে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষেরা। করোনা ভাইরাস সতর্কতায় বন্ধ রয়েছে সব হোটেল-রেস্টুরেন্ট। এতে সবচেয়ে বিপাকে পড়েছে রেলস্টেশনে থাকা ভ্রাম্যমাণ মানুষ গুলো। যারা দিনশেষে খাদ্যের জন্য নির্ভরশীল ছিল এই হোটেল-রেস্টুরেন্টের উপর। চাল চুলোহীন এই মানুষদেরকে খাদ্য সামগ্রী দিলেও তা তাদের বিশেষ উপকারে আসছে না।

পরিবার বিচ্ছিন্ন ভ্রাম্যমাণ এই মানুষ গুলোর পাশে দাড়িয়েছে ব্যতিক্রমী সেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘১ টাকায় জীবন’। ঝিনাইদহ জেলার তিনটি রেলওয়ে স্টেশনে (মোবারকগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন, কোটচাঁদপুর রেলওয়ে স্টেশন ও বারবাজার রেলওয়ে স্টেশন) ১ টাকায় জীবনের উদ্যোগে এই ছিন্নমূল মানুষ গুলোর মাঝে রান্না খাবার বিতরণ করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ১ টাকায় জীবন ও কালীগঞ্জ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের এর প্রদান উপদেষ্টা রফসান আল মাসুম খাঁন, উপদেষ্টা সদস্য শেখ আসরারুল হক অরাভ, সাজ্জাদ শুভ, ১ টাকায় জীবন এর সম্মানিত সদস্য সাইফুল ইসলাম, কালীগঞ্জ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও ১ টাকায় জীবন এর কেন্দ্রয়ি সমন্বয়ক মোস্তফা ইবনে মাসুদ, সহ সভাপতি মোঃ তুষার হোসেন রিজভী, ইয়াসিন আরাফাত তুহিন, সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরহাদ রহমান, ১ টাকায় জীবন এর সচিব তহিদুল ইসলাম, কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক আকাশ হোসেন, ছাত্র কল্যাণ সম্পাদক রাব্বী তাহমীদ সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

১ টাকায় জীবন এর কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক মোস্তফা ইবনে মাসুদ বলেন, ব্যতিক্রমী সংগঠন ১ টাকায় জীবন আত্ম প্রকাশ করার পর থেকেই বিভিন্ন ব্যতিক্রমী কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ছিন্নমূল মানুষ গুলোর মাঝে আমরা রান্না করা খাবার বিতরণ করছি। ভ্রাম্যমাণ এই মানুষ গুলোর জন্য আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তিনি আরো জানান, এ ছাড়া ও ১ টাকায় জীবন এর পক্ষ থেকে ৫০ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। অচীরেই ৫০ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রীী পৌঁছে দেওয়া হবে। আমরা এই কার্যক্রম কে আরো বিস্তৃত করতে সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *