সোমবার | ৩রা আগস্ট, ২০২০ ইং |

‘লং কোভিড’ বা প্রলম্বিত কোভিড

ডাঃ ইসমত কবীর, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, যুক্তরাজ্য : কোভিড১৯ এর বিশ্বজুড়ে অতিমারীর ছয়মাসেরও বেশি সময় হয়ে গেল। দেশে দেশে লক্ষ মানুষ সেরে উঠেছেন। সত্যিই কি এরা সবাই সেরে উঠেছেন?

অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে জ্বর নেই, অক্সিজেন স্বল্পতা নেই কিন্তু দেহজুড়ে আছে অবসাদ, ব্যথা বা শ্বাসকষ্ট। এ ব্যাপারটা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসা পত্রিকা ‘Journal of American Medical Association’ ইতালীয় ডাক্তারদের অভিজ্ঞতা নিয়ে গবেষণা প্রকাশ করেছে। এতে দেখানো হয়েছে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়া দশজনের মধ্যে নয়জনেরই একাধিক উপসর্গ দুই মাসের বেশি স্থায়ী হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে অবসাদ (৫৩%), শ্বাসকষ্ট (৪৩%), গিঁট এ ব্যথা (২৭%) আর বুকে ব্যথা (২২%). শতকরা মাত্র তেরভাগ সম্পূর্ণ আগের অবস্থায় ফিরে গেছেন। বিশ ভাগ বলেছেন তাঁদের জীবন মান (কোয়ালিটি অব লাইফ) নেমে গেছে।

এ সপ্তাহে ‘British Medical Journal’ এ প্রকাশিত হয়েছে এ সংক্রান্ত আরো কিছু তথ্য। চল্লিশ লক্ষ লোকের উপসর্গ নিয়ে খোঁজ খবর রাখছেন এমন একটা সংস্থার গবেষণা থেকে প্রতীয়মান হচ্ছে দশজনের মধ্যে একজনের অন্তত উপসর্গ তিন সপ্তাহের বেশি স্থায়ী হচ্ছে। এরাই হচ্ছেন প্রলম্বিত কোভিড এর শিকার। যুক্তরাজ্যে তাই ‘লং কোভিড সাপোর্ট গ্রুপ’ তৈরী হয়েছে, এর সদস্য সংখ্যা এরি মধ্যে সাত হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

জেনেরাল প্র‍্যাকটিশনার কেমন করে এ সমস্যা চিহ্নিত ও মোকাবেলা করবেন তা নিয়ে তৈরি হচ্ছে নীতিমালা।

কোভিড১৯ এর দীর্ঘ মেয়াদি প্রতিক্রিয়া জানার জন্য গবেষণা চলছে নিরন্তর।

লেখক : জেরিয়াট্রিক ও জেনারেল মেডিসিন বিশেষজ্ঞ রেজিস্ট্রার, কুইন এলিজাবেথ দা কুইন মাদার হসপিটাল, মারগেট, কেন্ট, যুক্তরাজ্য।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *