রবিবার | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

সদ্য অবসরে যাওয়া আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী নিয়ে কিছু কথা

মোঃ নাসির, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, নিউ জার্সি, আমেরিকা : ২০১৮ সালের ২৫ জানুয়ারি আইজিপি নিয়োগ পেয়েছিলেন জাবেদ পাটোয়ারী। পরে তাঁকে সিনিয়র সচিবের পদমর্যাদাও দেয় সরকার। ১৯৮৬ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে (বিসিএস) পুলিশ ক্যাডারের সদস্য হিসেবে সরকারি চাকরিতে যোগদান করেন তিনি। যেখানে তিনি মেধাতালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন।

চাঁদুপুরের কৃতী সন্তান জাবেদ পাটোয়ারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ বিভাগ থেকে প্রথম শ্রেণিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পাস করেন। তিনি যুক্তরাজ্যের লিসেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অপরাধ বিচার ও পুলিশ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

জাবেদ পাটোয়ারী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তার গবেষণার বিষয় ছিল, ‘বাংলাদেশের সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা’।

এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘অপরাধ বিচার শিক্ষা’ বিষয়ে সার্টিফিকেট অব অ্যাচিভমেন্ট অর্জন করেন। তিনি যুক্তরাজ্যের ব্রামশিলের পুলিশ স্টাফ কলেজ থেকে এবং যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার এফবিআই ন্যাশনাল একাডেমি থেকে উচ্চতর পেশাগত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের হাবার্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইউএস সাউথ এশিয়া লিডার এনগেজমেন্ট প্রোগ্রাম সম্পন্ন করেছেন। এর আগে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গত ১৩ এপ্রিল ২০২০ পুলিশ বাহিনীর প্রধানের পদ থেকে নিয়মিত অবসরে যাওয়া জাবেদ পাটোয়ারী |সদ্য অবসরে যাওয়া পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী তিনি আইজিপি হওয়ার পর থেকে পুলিশের দুর্নীতির বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নেন। তার সাহসী নেতৃত্বে পুলিশের দুর্নীতি অনেকটাই কমে এসেছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। এ ছাড়া পুলিশের বদলি-নিয়োগসহ নানা ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সক্ষম হন তিনি। বিশেষ করে ঘুষ ছাড়া পুলিশের কনস্টেবল নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন করে তাক লাগিয়ে দেন, যেটি সব মহলে ব্যাপকভাবে প্রসংশিত। এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে আইজিপিকে চিঠি দিয়ে ধন্যবাদ দেয় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। বদলির ক্ষেত্রে রাজনৈতিক বিবেচনার চেয়ে পেশাগত দক্ষতা, মেধার গুরুত্ব দেন জাবেদ পাটোয়ারী। এ ছাড়া অপরাধ করলে যথাযথ শাস্তির মাধ্যমে পুলিশের শৃঙ্খলা নিশ্চিতে কাজ করেছেন তিনি।জাবেদ পাটোয়ারীকে তার ভালো কাজের জন্য পুলিশের আইকন হয়ে থাকবেন । পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, আমরা পুলিশকে জনগণের কাছে নিয়ে যেতে চাই। থানাকে জনগণের বিশ্বাস ও আস্থার জায়গা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। আমরা মানবিক পুলিশ হতে চাই, জনগণের পুলিশ হতে চাই। পুলিশের কোনো দোষত্রুটি দেখলে সমালোচনার আহ্বান জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। তিনি বলেন, দেশের কোনো থানায় সেবা নিতে গিয়ে টাকাপয়সা দাবি করলে কিংবা নিরীহ কোনো লোক হয়রানির শিকার হলে পুলিশ সদর দপ্তরে অথবা জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে অবহিত কিংবা অভিযোগ প্রদান করা যাবে। পুলিশ বদলে যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনায় এবং আইজিপি ড.মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী সক্ষমতায়। পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, ‘পুলিশকে জনগণের আস্থা এবং বিশ্বাস অর্জন করতে হবে। ভালো ব্যবহার করতে হবে। দ্রুত সময়ে জনগণকে সেবা দিতে হবে। পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী দেশে ত্রবং বিদেশে পুলিশের সুনাম বয়ে ত্রনেছে। সদ্য অবসরে যাওয়া পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীকে সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। পরবর্তী তিন বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জারি করে। আমি উনার সুস্থ, সুন্দর ও দীর্ঘ জীবী কামনা করছি।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *