৭ কলেজকে অধিভুক্তি ‘অপরিকল্পিত’: ঢাবি কর্তৃপক্ষ

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,শনিবার,২০ জানুয়ারী ২০১৮: পূর্ব প্রস্তুতি ছাড়া ‘অপরিকল্পিতভাবে’ হঠাৎ করে ঢাকার ৭টি সরকারি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করায় পরীক্ষার সময়সূচি আর ফল প্রকাশে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে বলে স্বীকার করেছে ঢাবি কর্তৃপক্ষ।

ওই ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের দফায় দফায় আন্দোলনের মুখে শনিবার (২০ জানুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর স্বীকারোক্তিমূলক এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানায়।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয় ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও তিতুমীর কলেজ। তখন ঢাবির উপাচার্য ছিলেন অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। এখন উপাচার্যের দায়িত্বে আছেন অধ্যাপক আকতারুজ্জামান।

ঢাবির আওতাধীন হওয়ার পর গত প্রায় এক বছরে অন্তত তিন দফায় পরীক্ষার সময়সূচি ও ফল প্রকাশের দাবিতে রাজপথে নেমেছে ওই সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। গেল বছরের ২০ জুলাই প্রথমবার আন্দোলন শুরু হলে পুলিশের কাঁদানে গ্যাসের শেলে দৃষ্টিশক্তি হারান তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান। এ ঘটনায় প্রায় ১২শ’ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা দেয় পুলিশ।

এর পর দ্বিতীয় দফায় চতুর্থ বর্ষের ফল প্রকাশের দাবিতে গেল অক্টোবরে রাজধানীর নীলক্ষেতে শিক্ষার্থীরা রাজপথ অবরোধ করলে ঢাবি প্রশাসনের যথাসময়ে ফল প্রকাশের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় শিক্ষার্থীরা। নভেম্বরেই চতুর্থ বর্ষের ফল প্রকাশ করা হয়।

এর পর দুই মাস পর গত ১৮ জানুয়ারি ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের ফল প্রকাশ ও তৃতীয় বর্ষের ক্লাস শুরুর দাবিতে আবারও নীলক্ষেত মোড় অবরোধ করে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। আগামী এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশের আশ্বাস দিলে আগের মতোই অবরোধ প্রত্যাহার করে ছাত্র-ছাত্রীরা।

তবে এরই মধ্যে গেল সপ্তাহে “ঢাবি চাই বোঝা মুক্ত, বাতিল কর অধিভুক্ত” এ শ্লোগান নিয়ে ঢাবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা ওই সাত কলেজকে ঢাবির অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামে। দাবি আদায়ে উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচিও পালন করে শিক্ষার্থীদের একটি অংশ।

চলমান এ পরিস্থিতিতে শনিবার ঢাবির জনসংযোগ দফতরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, স্বতন্ত্র লোকবল ও ব্যবস্থাপনা দ্বারা অধিভুক্ত বা উপাদানকল্প শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে বিধায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও সামগ্রিক কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হবে না। একইসঙ্গে অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের সব কার্যক্রম নিজ নিজ ক্যাম্পাসে পরিচালিত হবে। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও পরিচয়পত্র পাবে না। ওই সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ কলেজ থেকে পরিচয়পত্র সংগ্রহ করতে হবে। পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন, পরিবহন, স্বাস্থ্যসেবা, পাঠাগার ব্যবহারেরও কোনও এখতিয়ার থাকবে না অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের।

bknews2010

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *