ইফতারে খেজুর খাবেন কেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম, রবিবার, ২০ মে ২০১৮: প্রতিদিনের ইফতারেই থাকছে নানা রকমের খেজুর। সুন্নত হিসেবেই রোজাদার ব্যক্তিরা খেজুর খেয়ে থাকেন।

বহুগুণে সমৃদ্ধ খেজুর আপনার শরীরের কি কি উপকার করছে তা জেনে নিতে পারে এখান থেকে –

হাড়ের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটে: খেজুরে উপস্থিত খনিজ এবং ভিটামিন হাড়কে এতটাই শক্ত করে দেয় যে বয়স্কালে অস্টিওপোরোসিসের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা একেবারে কমে যায়। এই ফলে উপস্থিত সেলেনিয়াম, ম্য়াঙ্গানিজ, কপার এবং ম্যাগনেসিয়াম এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

ওজন বৃ্দ্ধি পায়: নানা কারণে যাদের ওজন মাত্রাতিরিক্ত হারে কমে যেতে শুরু করেছে, তারা আজ থেকেই খেজুর খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন উপকার পাবেন। কারণ এই ফলে উপস্থিত ক্যালরি শরীরে ভাঙন রোধ করে ওজন বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

আরও পড়ুন – খেজুর খেলে কী হয়?

নার্ভাস সিস্টেমের কর্মক্ষমতা বাড়ায়: খেজুরে উপস্থিত নানাবিধ ভিটামিন এবং খনিজ, বিশেষত পটাশিয়াম নার্ভের কর্মক্ষমতা বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেই সঙ্গে ব্রেন পাওয়ার বাড়াতেও এই ফলটি দারুনভাবে সাহায্য করে।

অ্যানিমিয়ার মতো রোগকে দূরে রাখে: শরীরে আয়রনের ঘাটতি দেখা দিলেই মূলত এই ধরনের রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। তাই তো শরীরে যাতে এই খনিজটির ঘাটতি কোনও সময় দেখা না দেয়, সেদিকে খেয়াল রাখা একান্ত প্রয়োজন। আর এক্ষেত্রে খেজুর দারুনভাবে সাহায্য করতে পারে। কীভাবে? এই ছোট্ট ফলটি আয়রণ সমৃদ্ধি। তাই তো অ্যানিমিয়ার মতো রোগকে দূরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা নেয়।

অ্যালার্জির প্রকোপ কমায়: খেজুরে উপস্থিত সালফার কম্পাউন্ড অ্যালার্জির মতো রোগ থেকে দূরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। তাই তো যারা সারা বছরই এই রোগে ভুগে থাকেন, তাদের রোজের ডায়েটে এই ফলটির অন্তর্ভুক্তি মাস্ট।

Be the first to comment on "ইফতারে খেজুর খাবেন কেন?"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*