খালেদা জিয়ার দেখা পেলেন না ফখরুলরা

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,শনিবার,১৬ জুন ২০১৮: ঈদের দিনে কারাবন্দি খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে পারেননি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপি নেতারা। কারা ফটকে গিয়ে বিফল হয়ে ফিরতে হয়েছে তাদের।

শনিবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু, আবদুল আউয়াল মিন্টু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আজম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুকসহ কেন্দ্রীয় ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা কারাগারের কাছে আসেন। মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদসহ মহিলা নেতা-কর্মীরাও ছিলেন।

কারাগারের মূল ফটক থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে নেতাদের আটকে রাখে। সেখানে দুই শতাধিক নেতা-কর্মীও অবস্থান নেয় যারা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে শ্লোগান দেয়।

ভেতরে ঢুকতে না দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে ফখরুল বলেন, ‘আমাদের দেশনেত্রী এদেশের মানুষের হৃদয়ের মনি বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে অন্যায়ভাবে বন্দী করে রাখা হয়েছে। ঈদের দিনে আমরা তার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলাম। তিনদিন আগে আমরা সাক্ষাতের জন্য আবেদন করেছিলাম।

এ সময় তিনি আবেদনের চিঠির অনুলিপি দেখিয়ে বলেন, ‘নিয়ম আছে, ঈদের দিন বন্দীর সাথে দেখা করার। কিন্তু পুলিশ আমাদেরকে এখানে আটকিয়ে রেখেছে। জেলগেইটের কাছেও যেতে দিচ্ছে না। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।’

এ সময় মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমরা অনেকবার জেল খেটেছি, অনেক বছর জেলে থেকেছি। দেখেছি ঈদের দিন আত্মীয়-স্বজন, কাছের মানুষদের দেখা সাক্ষাৎ করার সুযোগ থাকে, সুযোগ দেয়। এবার যে অমানবিক আচরণ করা হয়েছে, এরকম অতীতে আর কখনো দেখিনি।’

এর আগে বিএনপি নেতারা দলের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। শ্রদ্ধা শেষে ফখরুল সাংবাদিকদের জানান, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

কারা সূত্রে জানা গেছে, ঈদের দিন খালেদা জিয়ার খাবারের তালিকায় থাকছে বিশেষ আয়োজন। নাস্তার মেন্যুতে থাকছে সেমাই, পায়েস ও মুড়ি। আর দুপুরে তার ইচ্ছা অনুযায়ী ভাত বা পোলাও সরবরাহ করা হবে। সঙ্গে থাকবে মাছ, মাংস, ডিম ও আলুর দম। আর রাতে বিএনপি প্রধানের খাবারের তালিকায় থাকবে পোলাও গরু অথবা খাসির মাংস, মিষ্টান্ন, পান-সুপারি এবং কোমল পানীয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া কারাগারে। সর্বশেষ খালেদা জিয়াকে কুমিল্লায় হত্যা ও নাশকতার দুই মামলায় হাইকোর্টের দেয়া জামিন ২৪ জুন পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।

bknews2010

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *