ইন্দোনেশিয়ায় বিধ্বস্ত প্লেনের ২৪ মরদেহ উদ্ধার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- বর্তমানকণ্ঠ ডটকম:

ইন্দোনেশিয়ায় বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স-৮ প্লেন বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ১৮৯ আরোহীর মধ্যে এক নবজাতকসহ এ পর্যন্ত ২৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে কর্তৃপক্ষ। পরে মরদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম থেকে জানা গেছে।

ইন্দোনেশিয়া কর্তৃপক্ষ বলছে, লায়ন এয়ারের জেটি-৬১০ ফ্লাইট বিধ্বস্তে নিহতদের মধ্যে ২৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করে প্যাকেটে ভরে হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে তাদের ময়নাতদন্ত করা হবে।

তবে মরদেহের সংখ্যা নিশ্চিত নয় উল্লেখ করে সোমবার (২৯ অক্টোবর) রাতে দেশটির পুলিশ কমিশনার মুশায়াফাক সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, কেরামাত জেটি পুলিশ হাসপাতালে মরদেহের প্যাকেটগুলো রাখা হয়েছে। আর প্রতি প্যাকেটে একটির বেশি মরদেহ থাকতে পারে। তাই আমরা মরদেহের সংখ্যা এখনও নিশ্চিত করতে পারছি না।

এছাড়া মরদেহগুলোর পরিচয় শনাক্ত করা অনেক কঠিন হবে বলেও সতর্ক করেন তিনি।

সোমবার লায়ন এয়ারের জেটি-৬১০ ফ্লাইটটি সমুদ্রে বিধ্বস্ত হয়ে যায়। এর আগে দেশটির রাজধানী জাকার্তা থেকে উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স-৮ প্লেনটি নিখোঁজ হয়।

ফ্লাইটটি জাকার্তা থেকে বঙ্গকা বেলুটুং দ্বীপপুঞ্জের প্রধান শহর পাংকল পিনংয়ের উদ্দেশে সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ২০ মিনিটে উড্ডয়ন করে। এর ১৩ মিনিট পর অর্থাৎ ৬টা ৩৩ মিনিট থেকেই প্লেনটি এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলারদের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলে। যা মাত্র এক ঘণ্টা পরই ৭টা ২০ মিনিটে অবতরণের কথা ছিল।

প্লেনটিতে দুই নবজাতক, এক শিশু, দুই পাইলট এবং ছয়জন কেবিন ক্রুসহ ১৮৯ জন আরোহী ছিলেন।

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

http://www.bartamankantho.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *