নেত্রকোনা -২ আসন: নৌকার পক্ষে ব্যাপক প্রচারণায় ভিপি লিটন

শ্রী অরবিন্দ ধর,বর্তমানকন্ঠ ডটকম:
নেত্রকোনা-২ (সদর-বারহাট্টা) আসনে নৌকার মাঝি হতে চান জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক শামছুর রহমান ওরফে ভিপি লিটন।
১০ বছর ধরে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে দলীয় নেতাকর্মীদের পাশাপাশি এলাকার দরিদ্র-অসহায় মানুষকে সাহায্য-সহযোগিতা করে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের আস্থায় পরিণত হয়েছেন।
ইতোমধ্যে তিনি নেত্রকোনা সদর ও বারহাট্টা উপজেলা শহর ও গ্রামে গ্রামে প্রচারণা চালিয়ে ভোটারদের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছেন।
এছাড়া মুক্তিযোদ্ধাসহ ও শ্রমজীবী, পেশাজীবী, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে মতবিনিময় করে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার তৈরি করেছেন।
নেতাকর্মীদের অভিমত ভিপি লিটনকে প্রার্থী দিলে এ আসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত। এ লক্ষ্যে ইউপি চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা তার পক্ষে প্রচার চালাচ্ছেন। পথসভা, কর্মিসভা, উঠান বৈঠকের পাশাপাশি নৌকায় ভোট চেয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ডিজিটাল প্রচারণাও চলছে।
ভিপি লিটন বলেন, মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। রাজনীতির শুরু থেকেই নিজেকে জনসেবায় নিয়োজিত করেছি। জনগণের সেবায় থাকতে চাই। তৃণমূলের অধিকাংশ নেতাকর্মী আমার সঙ্গে রয়েছেন।
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলে এ আসনটি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে পারব। নির্বাচিত হলে তিনি নেত্রকোনাকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে চান।
এ জেলাকে শিক্ষার নগরী হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি বেকারদের কর্মসংস্থান ও মাদকমুক্ত সমাজ গড়ে তোলার প্রতিশ্রোতি দিয়ে তিনি নৌকায় ভোট চাইছেন। তবে মনোনয়নের ক্ষেত্রে জননেত্রীর সিদ্ধান্তই চূরান্ত বলে উল্লেখ করেন ভিপি লিটন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করতে গিয়ে নানা সময় নির্যাতনের শিকার হয়েছি, তবুও পিছপা হইনি।
ছাত্রাবস্থা থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী আমি। গত নির্বাচনে মনোনয়ন চেয়ে পাইনি, তবে নৌকার পক্ষে কাজ করে বিজয় নিশ্চিত করেছি। ভিপি লিটন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সচিব সাজ্জাদুল হাসানের উদ্যোগে জননেত্রী শেখ হাসিনা নেত্রকোনায় একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও একটি মেডিকেল কলেজ স্থাপন করেছেন। নৌকাকে আবারো ক্ষমতায় বসিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি সবার প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, যদি আমি নৌকার টিকিট পাই তবে এ শহরকে উন্নয়ন ও শিক্ষা নগরীতে পরিনত করবো ইনশাআল্লাহ।

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

http://www.bartamankantho.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *