ভারতে ‘ডাইনি’ অপবাদ দিয়ে মা ও চার সন্তানকে হত্যা!

ভারত ডেস্ক । বর্তমানকণ্ঠ ডটকম-
‘ডাইনি’ অপবাদ দিয়ে ভারতের ওডিশায় এক নারী ও তার চার সন্তানকে হত্যা করেছে এলাকাবাসী। নিহত ওই নারীর নাম মাংরি মুন্ডা। স্থানীয় কিছু মানুষের অভিযোগ, মাংরি মুন্ডা ‘জাদুটোনা’ করে। তাদের দাবি মাংরি মুন্ডা গ্রামের কয়েকটি পরিবারের ক্ষতি করার চেষ্টা করেছিলেন। সুন্দরঘর জেলার একটি গ্রামে থাকতেন মাংরি।

ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ছয় জনকে গ্রেফতার করা হলেও ওই পরিবারটি হত্যার সঙ্গে আরও অনেকে জড়িত বলে মনে করছে পুলিশ।

গত শনিবার (২৬ জানুয়ারি) সন্তানসহ এই নারীর লাশ একটি কুয়ার মধ্যে পাওয়া যায়। মাংরি মুন্ডার বাড়ির কাছেই কুয়াটির অবস্থান।

ভারতে এমন ঘটনা এই প্রথম নয়। বেশ কিছু অঞ্চলে ‘ডাইনি’ অপবাদ দিয়ে নারীহত্যার ঘটনা প্রায়ই ঘটার সংবাদ পাওয়া যায়। ওডিশার স্থানীয় জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা কবিতা জালান বলেন, মাংরি মুন্ডা হত্যার প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই ব্যক্তি নিজেকে ‘ডাইনি তাড়ানোর ওঝা’ বলে দাবি করেছে।

গত শুক্রবার গভীর রাতে মাংরি মুন্ডার বাড়িতে একদল লোক আক্রমণ চালায়। ওই সময় মাংরির দুই ছেলে ও দুই মেয়ে ঘুমিয়ে ছিল। মা-সন্তানের ওপর লাঠিসোঁটা ও কুঠার নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে আক্রমণকারীরা। পরে মা ও সন্তানদের কুয়ায় ফেলে দেওয়া হয়।

পুলিশ কর্মকর্তা কবিতা জালান বলেন, এ ধরনের কুসংস্কারের বিরুদ্ধে গ্রামের মানুষের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তোলা প্রয়োজন। জড়িত অন্যান্য ব্যক্তিদের গ্রেফতারে অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে।

তবে শুধু ওডিশা নয়, ভারতের আসাম ও ঝাড়খণ্ডেও ডাইনি অপবাদে নারীদের হত্যার ঘটনা ঘটে থাকে।

২০১৭ সালে শুধু ওডিশাতেই ডাইনি অপবাদে হত্যার অভিযোগে ৯৯টি মামলা নথিবদ্ধ হয়েছিল। এর আগের বছর নথিবদ্ধ হয়েছিল ৮৩টি মামলা।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অন্ধবিশ্বাস‌‌ ও কুসংস্কারের কারণেই এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটছে।

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

http://www.bartamankantho.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *