| ২৭শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ১৩ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২রা জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী | সোমবার ভোলাহাটে অজ্ঞাতনামা নারীর লাশের পরিচয় মিলেছে – Bartaman Kanho

Bartaman Kanho

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

ভোলাহাটে অজ্ঞাতনামা নারীর লাশের পরিচয় মিলেছে

গোলাম কবির-
ভোলাহাট প্রতিনিধি । বর্তমানকণ্ঠ ডটকম- ভোলাহাটে অজ্ঞাতনামা নারীর লাশের পরিচয় মিলেছে। ১৩ ফের্রুয়ারী বুধবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার নতুন হাজীপাড়ার মানকি নামক স্থানে এক পুকুরের কুচড়িপানার ভিতরে এক নারীর লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে স্থানীয়রা ভোলাহাট থানা পুলিশে খবর দিলে তাৎক্ষণিক ভোলাহাট থানার অফিসার ইনর্চাজ নাসিরউদ্দিন মন্ডল, পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) জাহাংগীর আলম সঙ্গীয় পুলিশ সদস্য নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। পুলিশের প্রাথমিক ভাবে ২৫/৩০ বছর বয়সের এক নারীর লাশ হবে বলৈ ধারনা করেন। লাশটি ৭/৮ দিন পূর্বের হবে বলে ধারণা করে পুলিশ। অফিসার ইনর্চাজ জানান, ময়না তদন্তের পর আসল ঘটনা জানা যাবে। তবে প্রাথমিক ভাবে তার মাথায়, কানের উপর, বাম হাতে ও পিঠে একাধীক হাসুয়ার আঘাত দেখা গেছে। তার পরনে সবুজ রংএর পাজামা, দু’হাতে চিকন চুড়ি, ডান কানে স্বর্ণের দুল ও নাক ফুল ছিলো এবং তার গায়ে কোন পোষাক খুঁজে পাওয়া যায়নি। পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর লাশটির পরিচয় জানতে ব্যাপক তৎপরতা চালায়। রাতের মধ্যে লাশটির পরিচয় নিশ্চিত করে ভোলাাট থানা পুলিশ।

পুলিশ বর্তমানকণ্ঠ ডটকমকে জানায়, উদ্ধারকৃত লাশটির নাম মরিয়ম(২৬) পিতার নাম মৃতঃ তামিজুদ্দিন মালত, উপজেলার খাালআলমপুর গ্রামে। তার বিয়ে হয় গোমস্তাপুর উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী গ্রামে মৃতঃ তোহরুলের ছেলে মানিক অরফে রুবেলের সাথে । তারা স্বামী-স্ত্রী ভোলাহাট উপজেলার ছাইতনতলা নামক স্থানে নবীর বাড়ীতে ৫/৬ মাস পূর্ব থেকে ভাড়া থাকতো বলে মরিয়মের মা আঞ্জু জানান। প্রতিবেশিরা জানায়, মরিয়ম দরিদ্র মানুষ হওয়ায় প্রায় সময় মাঠে ঘাস তোলার কাজ করতেন। ১১/১২ দিন পূর্ব থেকে স্বামীর বাবার বাড়ী কাশিয়াবাড়ি যাওয়ার কথা বলে বাড়ী থেকে বের হয়েছিল। পুলিশ আসামী ধরার জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানান ভোলাহাট থানার অফিসার ইনর্চাজ নাসিরউদ্দিন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *