ভোটার উপস্থিতি কমের কারণ জানালেন সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক | বর্তমানকণ্ঠ ডটকম:
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচন এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটির সম্প্রসারিত অংশের ওয়ার্ডগুলোর নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি কম ছিল স্বীকার করে নিলেও প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন ভোটে তিনি সন্তুষ্ট।

শুক্রবার (১ মার্চ) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। এদিন ‘ভোটার দিবস’ উপলক্ষে একটি র‌্যালিতে অংশ নেন সিইসি। র‌্যালিটি বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সামনে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

নূরুল হুদা বলেন, ‘ঢাকা সিটির নির্বাচনের মেয়াদ খুব কম, এটা প্রথম কারণ ভোটার কম উপস্থিত হওয়ার। প্রধান রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করেনি, এটা দ্বিতীয় কারণ। আবহাওয়া খারাপ ছিল, তৃতীয় কারণ হলো এটা। এসব কারণে ভোটার উপস্থিত হয়নি।’

সিইসি বলেন, ‘তবে বাইরে যেসব নির্বাচন হয়েছে, যেমন-পটুয়াখালী, ঝিনাইদহ, সেখানে প্রচুরসংখ্যক ভোটার উপস্থিত ছিল। সেখানে অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন হয়েছে।’

গতকালের ভোটে নির্বাচন কমিশন সন্তুষ্ট কি না জানতে চাইলে নূরুল হুদা বলেন, ‘হ্যাঁ, সন্তুষ্ট।’ তিনি জানান, যে তিনটি কারণ উপরে ব্যাখ্যা করেছেন, সে কারণে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল, বৃহস্পতিবারের নির্বাচনে ভোটারদের যে উপস্থিতি, তা এ দেশের ভোটের প্রকৃত চিত্র নয়। তার দাবি, এ দেশের মানুষ সারি বেঁধে ভোট দিতে যায়।

১ মার্চ ভোটার দিবস পালিত হওয়ায় ভোটাররা উদ্বুদ্ধ হবেন বলেও মনে করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থানে উপজেলা পরিষদ, মেয়র পদে ও ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন/উপ-নির্বাচন হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার দুই সিটির ভোটে ভোটার ছিল উল্লেখযোগ্য হারে কম।

উল্লেখ্য, ডিএনসিসি মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির শাফিন আহমেদের চেয়ে সাত লাখ ৮৬ হাজার ৮৭৩ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হন তিনি। বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম আতিকুলকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *