Fri. Dec 13th, 2019

Bartaman Kanho

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

‘পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিতে সারা বিশ্ব থেকে অনুরোধ এসেছে’

নিউজ ডেস্ক | বর্তমানকণ্ঠ ডটকম:
পুলওয়ামার হামলার ঘটনা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ পাকিস্তানকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, কাশ্মীরে হামলার পরে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আমাকে ফোন করে সান্ত্বনা দিতেন। তারপরই তারা আমাকে নরম সুরে অনুরোধ করতেন খুব কড়া ব্যবস্থা না নেওয়ার জন্য।

এদিকে কাশ্মীরের পুলওয়ামাসহ ভারতের ভূখণ্ডে একাধিক নাশকতার অভিযোগে জইশ-ই-মোহাম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারকে ফেরত পেতে মরিয়া ভারত সরকার।

বুধবার নয়াদিল্লিতে ইমরানকে উদ্দেশ করে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পাক প্রধানমন্ত্রী কত উদার, সেই কথা শোনা যাচ্ছে বিভিন্ন মহলে। উনি যদি এতটাই উদার হন, তাহলে মাসুদ আজহারকে ভারতের হাতে তুলে দিক। এতেই বোঝা যাবে উনি আসলে কতটা উদার।

এ সময় তিনি পাকিস্তানকে উদ্দেশ করে বলেন, সন্ত্রাসে মদদ দেওয়া ও শান্তি আলোচনা একসঙ্গে চলতে পারে না।

পাকিস্তানের হাতে বন্দি ভারতীয় বিমানবাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তির ঘোষণা করার পর থেকেই ইমরান খানকে ‘শান্তির দূত’ বলা হয়।

পুলওয়ামা ঘটনার পরও তিনি দাবি করেছিলেন, ভারত প্রমাণ দিলেই এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন তিনি।

বালাকোটের জইশ ঘাঁটিতে ভারতীয় বিমানবাহিনীর বোমাবর্ষণের পর পাক সেনার ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন সুষমা।

ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভারতীয় বিমানবাহিনী জইশ ঘাঁটি ধ্বংস করতেই অভিযান চালিয়েছিল। কিন্তু আমাদের ওপর পাল্টা হামলা চালাল জইশ নয়, পাকিস্তানি সেনা। কেন তা আমরা বুঝতে পারছি না।

পাকিস্তানকে আক্রমণ করে সুষমা বলেন, আপনাদের দেশের মাটিতে জইশ শুধু ঘাঁটি গেড়েছে, এমনটা নয়। আপনারা জঙ্গিদের আর্থিক সাহায্য করেন। আক্রান্ত দেশ পাল্টা অভিযান চালালে জঙ্গিদের হয়ে আপনারাই তাদের ওপর হামলা চালান।

একই সঙ্গে পাক সেনা এবং পাক গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টার সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের (আইএসআই) কবল থেকে পাকিস্তানকে মুক্ত করার জন্যও ইমরানকে পরামর্শ দেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *