Wed. Sep 18th, 2019

Bartaman Kanho

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

ভোট দেয়ার অধিকার নেই যেসব বলিউড তারকার

বিনোদন ডেস্ক | বর্তমানকন্ঠ ডটকমঃ
এবার ভারতের লোকসভা নির্বাচনে অনেক নামিদামি কিংবদন্তি তারকাই ভোটের মাঠে নেমেছেন। বলিউডের ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী থেকে শুরু করে পশ্চিমবঙ্গের মিমি চক্রবর্তী পর্যন্ত পিছিয়ে নেই কেউই। এরইমধ্যে গেল ১১ এপ্রিল প্রথম ধাপের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার হবে দ্বিতীয় ধাপের ভোট।

তবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা দূরে থাক, লোকসভা ভোটে বলিউডের অনেক হাইভোল্টেজ তারকা ভোটই দিতে পারবেন না। আর সেটা শুটিং নিয়ে ব্যস্তকার কারণে নয়, বরং তাদের ভোট দেবার অধিকারই নেই। অথচ তারাই কিনা বিশ্বজুড়ে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

এবার লোকসভায় ভোট দিতে পারবেন না যেসব তারকা:

অক্ষয় কুমার: দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে অভিনয়ে মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন অক্ষয় কুমার। ভারতেই শুধু নয়, বিশ্বজুড়ে তার ভক্তের সংখ্যাও অগণিত। কিন্তু এই বলিউড অভিনেতা এবার দেশটির জাতীয় নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন না। কারণটাও স্পষ্ট। পাঞ্জাবের অমৃতসরে জন্ম হলেও অক্ষয়ের কাছে আছে কানাডার পাসপোর্ট।

সানি লিওন: এক সময়ের আলোচিত পর্ন তারকা বলিউড অভিনেত্রী সানি লিওনও এবার লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন না। কেননা তিনি জন্মসূত্রে ভারতীয় হলেও তারও রয়েছে কানাডার পাসপোর্ট।

ক্যাটরিনা কাইফ: একই অবস্থা আবেদনময়ী নায়িকা ক্যাটরিনা কাইফের ক্ষেত্রেও। বি-টাউনের এই সুন্দরী মূলত একজন ব্রিটিশ নাগরিক। ফলে তারও লোকসভা নির্বাচনে ভোট দেয়া হচ্ছে না।

আলিয়া ভাট: মায়ের কারণে জন্মসূত্রে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পেয়ে যান আলিয়া ভাট। তার মা সোনি রাজদান একজন ব্রিটিশ নাগরিক। আর তাই ভারতীয় নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট না থাকায় লোকসভায় ভোট দেয়ার অধিকার নেই আলিয়া ভাটের।

জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ: এই বলি অভিনেত্রীর জন্ম বাহরাইনে। বাবার জন্ম শ্রীলঙ্কায়। মা মালয়েশিয়ার নাগরিক। এসব কারণে এবার লোকসভায় ভোট দিতে পারছেন না মুম্বাইয়ের এই বাসিন্দা।

দীপিকা পাড়ুকোন: পদ্মাবত খ্যাত হালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও রণবীর সিংয়ের পত্নী দীপিকা পাডুকোনও ভোট দিতে পারবেন না। কারণ, তার জন্ম ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে। আর সঙ্গে আছে ড্যানিশ পাসপোর্ট।

ইমরান খান: এবারের লোকসভা নির্বাচনে ভোট দেয়ার অধিকার নেই আমির খানের ভাগ্নে বলিউড অভিনেতা ইমরান খানেরও। কারণ কাগজে কলমে তিনি একজন মার্কিন নাগরিক। সেদেশের পাসপোর্টও আছে তার কাছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *