রাণীশংকৈলে স্বামীর অমানবিক নির্যাতনে গৃহবধু হাসপাতালে

আনোয়ার হোসেন আকাশ | বর্তমানকন্ঠ ডটকম:
রাণীশংকৈল ধর্মগড় ধুলঝাড়ি গ্রামের গৃহবধু লিপি আক্তার (২১) স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনের হাতে অমানবিক নির্যাতনের শিকার হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে। পাষন্ড স্বামী কাউসার ১৮এপ্রিল বিকালে অমানবিক মারধর করে। স্থাণীয় ইউপি সদস্য সিদ্দিক আলী লিপিকে উদ্ধার করে ১৯ এপ্রিল দুপুরে রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হাসপাতালের ফ্লোরে চিকিৎসাধিন অবস্থায় লিপি যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে।

নির্যাতিতা লিপি হাসপাতালের ফ্লোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন, বিয়ের এক বছর জীবনে শ্বশুর বাড়ির লোকজন সব সময় আমাকে মারপিট করে । ধর্মগড় ইউপি চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলাম মুকুল বিচারের শালিসের সাধ্যমে আমাকে শ্বশুর বাড়ি পাঠানোর এক মাসের মধ্যেই আবার এভাবে মারপিট করে। সিদ্দিক মেম্বার আমাকে উদ্ধার না করলে হয়তো আমাকে মেরে ফেলতো। আমাকে অমানবিক নির্যাতন করার জন্য স্বামী শ্বশুর শ্বাশুড়ি দেবরের উপযুক্ত বিচার চাই।
কাউসার মুজাহিদাবাদ ভদ্রেশ্বরী গ্রামের মৃত সইদুল হকের ছেলে। এ রিপোর্ট লিখ্ াপর্যন্ত কোন মামলা হয়নি তবে মামলা করা হবে বলে লিপির বাবার বাড়ির লোকজন জানান।

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

http://www.bartamankantho.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *