Thu. Sep 19th, 2019

Bartaman Kanho

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

রোহিঙ্গা সংকট থেকে উত্তরণে রিয়াদে কূটনীতিক ও সাংবাদিকদের ব্রিফিং

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, সৌদি আরব : বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণ করা রোহিঙ্গাদের সর্বশেষ অবস্থা ও বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়ন ও অর্জন নিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রেস উইং এর উদ্যোগে রিয়াদে বিভিন্ন মিশনের প্রেস ও কালচারাল উইং-এ কর্মরত কূটনীতিক ও সাংবাদিকদের নিয়ে আজ ২৫ জুন মঙ্গলবার রিয়াদের ডিপ্লোম্যাটিক কোয়ার্টারের ম্যারিয়ট হোটেলে এক ব্রিফিং এর আয়োজন করা হয়। দূতাবাসের উপ-মিশন প্রধান ড. মোহাঃ নজরুল ইসলাম রোহিঙ্গা বিষয়ে ব্রিফিংকালে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবিকতা ও সহানুভূতি প্রদর্শন করে প্রায় ১২ লক্ষ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। যার কারণে তাঁকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মাদার অফ হিউম্যানিটি উপাধিতে ভূষিত করেছে। কিন্তু বাংলাদেশের পক্ষে রোহিঙ্গাদের দীর্ঘ মেয়াদে আশ্রয় ও খাবার প্রদান করা সম্ভব নয়। উপ-মিশন প্রধান এ সময় রোহিঙ্গা সংকটের ইতিহাস তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী মিয়ানমারের উচিত তাঁদের নাগরিকদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে নেয়া। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে উত্থাপিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাঁচটি সুপারিশ বাস্তবায়নের বিষয়ে তিনি উল্লেখ করেন, যার মধ্যে রয়েছে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়া, রাখাইনে জাতিগত নিধন বন্ধ ও কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন।

তিনি রোহিঙ্গাদের নিরাপদে তাঁদের দেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য সাংবাদিক ও কূটনীতিকদের সহায়তা কামনা করেন। নজরুল ইসলাম এ সময় কূটনীতিকদের কেউ বাংলাদেশে অবস্থিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের শিবির সরেজমিনে প্রদর্শন করতে চাইলে দূতাবাসের পক্ষ থেকে সহায়তা করা হবে বলে জানান।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য প্রদান করেন দূতাবাসের প্রেস উইং এর প্রথম সচিব মোঃ ফখরুল ইসলাম। তিনি বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়ন ও অর্জন বিষয়ে উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্তে বাংলাদেশ ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পরিণত হবে।

তিনি উপস্থিত কূটনীতিকদের জানান, বাংলাদেশের উন্নয়ন আজ রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে মহাকাশে স্যাটেলাইট প্রেরণ করেছে এবং বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য নিউক্লিয়ার প্ল্যান্ট স্থাপন করছে।

ফখরুল ইসলাম বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ন, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বিষয়ে ও আলোকপাত করেন। রোহিঙ্গা সংকট বাংলাদেশের উন্নয়ন বাঁধাগ্রস্ত ও সামাজিক সমস্যা তৈরি করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি সকল মিশনে কর্মরত প্রেস উইং এর কর্মকর্তাদের তাঁদের দেশের সংবাদ মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে সংবাদ প্রচারের আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্য, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ড, চীন সহ প্রায় ৫৫টি দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের কূটনীতিকগণ যোগ দেন। এছাড়া সৌদি আরবের সর্বাধিক প্রচারিত পত্রিকা আরব নিউজ, সৌদি গেজেট, টিভি চ্যানেল আখবারিয়া সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগন যোগ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *