Sun. Oct 20th, 2019

Bartaman Kanho

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম

স্পেনে ‘বৈধ পথে রেমিটেন্স প্রেরণের উপকারিতা ও প্রবাসীদের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা

স্পেনে ‘বৈধ পথে রেমিটেন্স প্রেরণের উপকারিতা ও প্রবাসীদের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা

কবির আল মাহমুদ, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, স্পেন : স্পেনের মাদ্রিদে ‘বৈধ পথে মানি ট্রান্সফারের উপকারিতা ও প্রবাসীদের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় বাংলা টাউন রেস্তোরাঁয় বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘ইজি মানিট্রান্সফার’ এর উদ্বোধন উপলক্ষে এ আলোচনার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্পেনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহেমদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সভপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক, প্রাক্তন সভাপতি আল মামুন ও স্পেনের রাজনৈতিক দল সোশ্যালিস্ট পার্টির মূখপাত্র রবার্তো গনজালেজ বোজা।
‘ইজি মানি ট্রান্সফার’ এর পরিচালক খায়রুল আলম জামানের সভাপতিত্বে ও স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্য কবির আল মাহমুদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ‘ইজি মানি ট্রান্সফার’ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল ইসলাম নাজু।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদ বলেন, প্রবাসীদের প্রেরিত রেমিটেন্সে বাংলাদেশের উন্নয়ন কার্যক্রম বহুলাংশে পরিচালিত হচ্ছে। প্রবাসীরা যাতে বৈধ পথে বাংলাদেশে অর্থ প্রেরণে উদ্বুদ্ধ হয়, সেজন্য সরকার নানা উদ্যোগ নিয়েছে। অতিসম্প্রতি সরকার প্রবাসীদের প্রেরিত রেমিটেন্সে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকার উপর ২ শতাংশ প্রনোদনা দিচ্ছে। এ প্রনোদনার অন্যতম কারণ হচ্ছে বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রবাসীদেরও একাত্মতা করা।
রেদোয়ান আহমেদ অবৈধ পথে অর্থ পাঠানোতে মানসিক শান্তি নেই উল্লেখ করে আরো বলেন, দেশে আপনার স্বজনরা কেউ যদি অবৈধ পথে পাঠানো আপনার অর্থ দিয়ে কোন দালানও তৈরী করেন এবং কোন কারণে সরকার যদি জানতে চায় আপনার স্বজনের অর্থের উৎস কোথায়, তখন তিনি প্রমাণ করতে পারবেন না যে বিদেশ থেকে আপনার পাঠানো অর্থে তারা দালান তৈরী করেছেন। অথচ বৈধ পথে প্রেরণ করলে সরকারও ঐ অর্থের উৎস সম্পর্কে অবগত থাকে।
তিনি বৈধ পথে অর্থ প্রেরণে বাংলাদেশি মানি ট্রান্সফার প্রতিষ্ঠানগুলোর ভূমিকা অনেক বেশি উল্লেখ করে বলেন, এসব প্রতিষ্ঠান সততা ও বিশ্বস্ততা অক্ষুন্ন রেখে দ্রুত সেবা প্রদান করলে বৈধ পথেই অর্থ প্রেরণে প্রবাসীরা উৎসাহিত হবেন। তিনি বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতৃবৃন্দকেও এব্যাপারে ভূমিকা রাখার অনুরোধ জানান।
আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের প্রাক্তন সভাপতি লুৎফুর রহমান, প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক ইসলাম উদ্দিন পঙ্কী, মানবাধিকার সংগঠন ভালিয়েন্তে বাংলার সভপাতি ফজলে এলাহী, সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিন, ইসলামী শিক্ষক মওলানা গৌছ উদ্দিন, আওয়ামী লীগ স্পেন শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক বদরুল আলম মাস্টার, সদস্য তানিম চৌধুরী, ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবুল হোসেন, সাংবাদিক একেএম জহিরুল ইসলাম, স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাহাদুল সুহেদ, সাংবাদিক ইব্রাহীম খলিল, আমানাহ মানি ট্রান্সফারের স্বত্বাধিকারী জামিল চৌধুরী রানা, ব্যবসায়ী শাওন আহমেদ, রিপন আহমেদ, জকিগঞ্জ সমিতির সভাপতি সাদ উদ্দিন, মাদ্রিদ বায়তুল মুকাররম জামে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালিক, কোষাধ্যক্ষ হারুনুর রশিদ. নরসিংদী অ্যাসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াছিন মিয়া, কমিউনিটি নেতা বাবুল মিয়া, এমআই আমিন, ওলিউর রহমান, জসিম উদ্দিন, শাহিন মিয়া, ইব্রাহীম খলিল, হারুণ মিয়া, শেখ হাফিজ, নাজিম উদ্দিন, আবিদুর রহমান জসিম প্রমূখ।
আলোচনা শেষে অতিথিবৃন্দ ফিতা কেটে ‘ইজি মানি ট্রান্সফার’ এর উদ্বোধন করেন। পরে দোয়া পরিচালনা করেন হাফিজ আতিকুর রহমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *