পাবনায় অ্যানথ্রাক্সে আক্রান্ত ৭

পাবনা,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার ভবানীপুর ও হারোপাড়া  গ্রামে ৭ জন অ্যানথ্রাক্স রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তারা সকলেই একটি অ্যানথ্রাক্স আক্রান্ত গরুর মাংস খান বলে জানা গেছে।

শনিবার (৩ জুন) ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. ইতিয়ারা পারভীন ওই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আক্রান্ত ব্যক্তিরা হলেন, নজরুল ইসলাম (২৮), বিপ্লব (২৫), শাহজাহান আলী (৩৫), বাবলু (৪০), সায়েম (৩৫), সবুজ (২৮) ও মন্টু (৩০)। এরা সবাই ভাঙ্গুড়ায় মাংস ব্যবসার সাথে জড়িত বলে জানা গেছে। শুক্রবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আক্রান্ত ব্যক্তিরা ভর্তি হন।

ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহাদৎ হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবগত আছি। আক্রান্তদের সঠিক চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’
 
সরেজমিনে জানা যায়, শুক্রবার পার্শ্ববর্তী ফরিদপুর উপজেলার জন্তিহার গ্রামের রহিম আলীর একটি ষাঁড় গরু হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। তড়িঘড়ি করে তিনি ষাঁড়টি জবাই করেন। এ দিন দুপুরে ওই ষাঁড়ের মাংস কাটা এবং ধোয়ার কাজে অংশ নেয় ভাঙ্গুড়া উপজেলার ওই সাত ব্যক্তি। তারা কাজ শেষে ইফতারে ওই মাংস খান। এর দু-তিন ঘণ্টা পরে অংশগ্রহণকারী সাতজনের হাতে-পায়ে ফোঁসকা ওঠে ক্ষতের সৃষ্টি হয়। ক্রমেই ফোঁসকার স্থানে প্রচুর চুলকানি এবং ব্যাথা শুরু হয়। রাতেই তারা ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন।

অ্যানথ্রাক্স আক্রান্ত বাবলু জানান, গরুর মাংস ধরার পর তার হাতে ফোঁসকা উঠতে থাকে। তারপর শুরু হয় প্রচণ্ড ব্যাথা। এরপর ফোঁসকা গলে দগদগে ঘা হয়ে যায়।

চিকিৎসা কর্মকর্তা ইতিয়ারা পারভীন জানান, আক্রান্ত ব্যক্তিদের ক্ষতস্থান পরীক্ষা করে এটি চামড়ার অ্যানথ্রাক্স বলে নিশ্চিত হয়েছেন। ভাঙ্গুড়া উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন বলেন, এসব ব্যক্তি নিঃসন্দেহে অ্যানথ্রাক্স আক্রান্ত।

প্রসঙ্গত, অ্যানথ্রাক্স কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়, তাই এ রোগে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্কতা ও সচেতনতা বাড়াতে হবে। মৃত পশুটি এবং সাথে পশুর বর্জ্য, রক্ত, লালা ইত্যাদি সঠিকভাবে মাটিতে পুতে ফেলতে হবে। আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষই জানে না অ্যানথ্রাক্স কী? এবং অ্যানথ্রাক্স আক্রান্ত পশুর মাংস খেলে বা আক্রান্ত মৃত পশুর সংস্পর্শে আসলে অ্যানথ্রাক্স হতে পারে।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -