মনপুরায় জোয়ারের পানি ঢুকে ৩০ হাজার মানুষ বন্ধী

মনপুরা (ভোলা),বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: ভোলার মনপুরা উপজেলার এক নম্বর মনপুরা ইউনিয়নের চৌমহনী বাজার সংলগ্ন পশ্চিম পাশের ভাঙ্গা বেড়ীবাঁধ ও হাজির হাট ইউনিয়নের পূর্ব সোনার চরের ভাঙ্গা বেড়ীবাঁধ দিয়ে জোয়ারের পানি ঢুকে পড়েছে। এতে চরাঞ্চলসহ ৩০ হাজারেরও অধিক মানুষ পানিবন্ধী হয়ে পড়ছে।

প্লাবিত এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিদিন জোয়ারের পানি ভাঙ্গা বেড়ীবাঁধ দিয়ে ঢুকে গ্রামগুলো প্লাবিত হয়ে মানুষ পানিবন্ধী রয়েছে।চরাঞ্চলগুলোতেও বেড়ীবাঁধ না থাকায় প্রতিদিন জোয়ারের পানি ওঠা নামা করে। মানুষের বসত ভিটা ডুবে থাকে। জোয়ারের পানিতে পুকুর ডুবে যাওয়ায় বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট দেখা দিয়েছে। রান্না-বান্নার কাজ ময়লা আবর্জনার পানি দিয়ে চলছে। বিশুদ্ধ পানির আনার জন্য মেয়েরা জোয়ারের পানি উপেক্ষা করে অনেক দূর থেকে টিউবওয়েল থেকে কষ্ট করে পানি আনছে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোহাগ হাওলাদার বলেন, 'ভাঙ্গা বেড়ীবাঁধ দিয়ে জোয়ারের পানি ঢুকে মানুষ পানিবন্ধী হয়ে পড়ছেন। আমি খবর পেয়ে দ্রুত পানিবন্ধী এলাকা পরিদর্শন করি। আমি বিষয়টি জেলা প্রশাসক মহোদয়কে অভিহিত করেছি।'

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -