দিয়াজ ইরফানকে খুন করা হয়েছে: তদন্ত কর্মকর্তা

চট্টগ্রাম,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজন ইরফানকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) চট্টগ্রাম অঞ্চলের সহকারী পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবীর এ তথ্য জানিয়েছেন।
 
রবিবার (৩০ জুলাই) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এই ছাত্রলীগ নেতার দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হওয়ার পর চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

দিয়াজ হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন বলেন, ‘ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন এখনো হাতে পায়নি জানিয়ে তিনি বলেন তদন্তকারী চিকিৎসক বলেছেন, দিয়াজের মৃত্যু শ্বাসরোধজনিত হত্যাকাণ্ড।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি দিয়াজ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক ছিলেন। গত বছরের ২০ নভেম্বরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ নম্বর গেইট এলাকার বাসা থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় দিয়াজের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
মরদেহ উদ্ধারের পর দিয়াজের অনুসারী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা দাবি করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের টেন্ডার নিয়ে জটিলতার জেরে দিয়াজকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

এর মধ্যে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রথম ময়নাতদন্তের পর ২৩ নভেম্বর চিকিৎসকরা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় এই সহ-সম্পাদক ‘আত্মহত্যা করেছেন’ বলে জানান।

কিন্তু ওই ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে ২৪ নভেম্বর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা টিপু ও সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন চৌধুরীসহ ১০ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী। পরে আদালতের নির্দেশে দ্বিতীয় ময়নাতদন্তের জন্য দিয়াজের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -