‘নরসিংদী সদর উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়িত ঘোষণা’

খন্দকার শাহিন,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: ১৪টি ইউনিয়ন ও ৩১২টি গ্রামে নরসিংদী সদর উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত ষোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১ টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিতে নরসিংদী-১ আসনের এমপি ও পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী লে: কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম হীরু (বীর প্রতীক), নরসিংদী সদরে শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব দেশকে অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ করতে বিদ্যুতের স্বপ্ন দেখেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতায় তিনি পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমকে মৌলিক চাহিদা হিসেবে চিহ্নিত করে সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎ আমাদের উন্নয়নের চাবিকাঠি। আর সে লক্ষ্যকে সামনে রেখেই বর্তমান সরকার বিদ্যুতের আলোয় ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

নরসিংদী জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস এর সভাপতিত্বে আয়োজিত কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, বেলাব ও মনোহরদীর সংসদ সদস্য হুমায়ুন মজিদ,সাংসদ আলহাজ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা,বাংলাদেশ তাতীলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আলহাজ ইঞ্জিনিয়ার শওকত আলী,নরসিংদী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ আব্দুল মতিন ভূঞা,নরসিংদীর পুলিশ সুপার আমেনা বেগম (বিপিএম),নরসিংদীর সিভিল সার্জন ড. সুলতানা রাজিয়া,নরসিংদী পৌর মেয়র আলহাজ্ব কামরুজ্জামান কামরুল,মাধবদী পৌসভার মেয়র হাজী মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক,নরসিংদী পল্লী বিদ্যুত সমিতি-১ এর মহা ব্যবস্থাপক এজেডএম আজাদ জৈষ্ঠ, প্রেসক্লাবের সভাপতি মোর্শেদ শাহরিয়ার, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মানিক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মোতালিব পাঠান প্রমুখ।

নরসিংদী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সেলিম রেজার আয়োজনে সদর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মসূচি সমাপ্ত উপলক্ষে, ৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের আওতাধীন নরসিংদী সদর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কাজের তথ্যাবলী তুলে ধরেন পল্লী বিদ্যুত সমিতির জিএম প্রকৌশলী মো. সাইরুল ইসলাম।

তিনি জানান, এ উপজেলায় পিক আওয়ারের বিদ্যুতের চাহিদা হচ্ছে ১৫৭ মেগাওয়াট। সেই সাথে ২১৪ বর্গ কি.মি. এলাকায় এক লাখ ৮৭ হাজার ছয় শত ১৭ জন গ্রাহকের ঘরে বিদ্যুত সেবা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে আবাসিক গ্রাহক সংখ্যা এক লাখ ৬৭ হাজার ১৮২, বাণিজ্যিক গ্রাহক ১০ হাজার ২৭০, সেচ প্রকল্পে এক হাজার ৩৯৭, শিল্প কারখানায় সাত হাজার ৮০ এবং অন্যান্য এক হাজার ৬৮৮।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -