ত্বক ভাল রাখতে ৬ খাবার

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: তারুণ্যদীপ্ত ত্বকের জন্য বেশি কিছু করার দরকার নেই। আপনার নিয়মিত খাদ্যাভ্যাস জারি রেখেই ত্বকের যত্ন নিতে পারেন। এতে বেঁচে যাবে অনেকটা সময়। এই সময়টুকু কাটাতে পারেন বই পড়ে বা থ্রিলিং কোনো মুভি দেখে।
তেমন কয়েকটি খাবারের গুণাগুণ দেওয়া হলো-

দই : দই পছন্দ করে না এমন মানুষ কমই আছে। দইয়ে আছে দাঁতের জন্য উপকারী ক্যালসিয়াম ও পটাসিয়াম। এই দুটি খনিজ দাঁতকে রোগ ও ক্ষয় থেকে রক্ষা করে। একই সঙ্গে ত্বককে রাখে দীপ্তিময়। চাইলে ত্বকেও লাগাতে পারেন।
স্ট্রবেরি : এতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি আছে। ভিটামিন সি ত্বককে ক্ষয় থেকে রক্ষা করে। ঠাণ্ডা দই ও লেবুর রসের সঙ্গে স্ট্রবেরি চটকে ব্লেন্ডিং করে বানিয়ে নিতে পারেন মজাদার পানীয়। এটি ডার্ক স্পট দূর করতে সাহায্য করে। স্ট্রবেরির ভিটামিন সি ও ইলাজিক এসিড প্রচুর পরিমাণ কোলাজেন উৎপাদন করে। এটি এন্টিঅক্সিডেন্টের কাজ করে।
অ্যাভাকাডো : অ্যাভাকোডা সুন্দর ফলগুলোর একটি। এটি প্রয়োজনীয় এন্টিঅক্সিডেন্ট ও ফ্যাটি এসিডে সমৃদ্ধ। অ্যাভাকাডো ত্বককে দিতে নিটোল ও উজ্জ্বল গড়ন। সালাড ও নাস্তায় অ্যাভাকোডা রাখতে পারেন।
চা : দৈনন্দিন পানীয়ের তালিকা চা রাখেন না এমন লোক কমই আছেন। সব ধরনের চা ত্বকের জন্য ভালো। তবে সবুজ ও সাদা চা বেশি উপকারী। কারণ এগুলোতে কালো চায়ের দ্বিগুণ এন্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে।
বাদাম : বাদামে আছে উচ্চমাত্রার ক্যাটালাস। এই এনজাইম ত্বকের অনুজ্জ্বলতাকে দূরে সরিয়ে রাখে।
কফি : কফি ত্বককে সূর্যরশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করে। এছাড়া ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষাকারী কোলাজেন ও ইলস্টিনের মতো উপদান কমে যেতে দেয় না। তবে সারাদিনে এক কাপের বেশি কফি পান না করাই ভালো।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -