মিয়ানমারে হস্তক্ষেপের বিপক্ষে রাশিয়া

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: মিয়ানমারে হস্তক্ষেপের মাধ্যমে রোহিঙ্গা মুসলিম গণহত্যা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন অনেকে। কিন্তু তার সঙ্গে দ্বিমত প্রকাশ করলো বিশ্বের অন্যতম ক্ষমতাধর দেশ রাশিয়া।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে সমর্থন জানিয়ে দেশটিতে হস্তক্ষেপের বিপক্ষে অবস্থান জানিয়েছে রাশিয়া। রোহিঙ্গা সংকটকে মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ বিষয় দাবি করে শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ অবস্থানের কথা জানায় রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, মিয়ানমারে চরম আন্তঃধর্মীয় সংঘাত চলছে। এসময় বাইরের কোনো হস্তক্ষেপ সেই সংঘাতকে আরো শোচনীয় করে তুলতে পারে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেন, একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ সেখানকার আন্তঃধর্মীয় বিবাদ আবার ফিরিয়ে আনতে পারে। এক্ষেত্রে আমরা রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিভিন্ন সংগঠনের সমন্বিত বিবৃতি বিবেচনায় নিয়েছি। আমরা মিয়ানমার সরকারের পক্ষে সমর্থন প্রকাশ করছি এবং সন্ত্রাসীদের প্ররোচনা এড়িয়ে চলতে সব ধর্মের নেতাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

গত ২৪ আগস্ট রাতে রোহিঙ্গারা রাখাইনে পুলিশ স্টেশন, সেনা ঘাঁটি ও সীমান্ত চৌকিতে হামলা চালায়। রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের এ হামলার পর নতুন করে সেনা অভিযান শুরু হয়। রাখাইনে রোহিঙ্গাদের গ্রাম জ্বালাও-পোড়াও, হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে মিয়ানমার সেনার বিরুদ্ধে।

এ সেনা অভিযানে নারী ও শিশুসহ অসংখ্য রোহিঙ্গা নিহত হয়।জীবন বাঁচাতে গ্রাম ছেড়ে বাংলাদেশ সীমান্তে শরণার্থীদের ঢল নামে। ইতিমধ্যে প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে বলে ধারণা করছে জাতিসংঘ। রাজ্যটির প্রায় ২০০ গ্রাম এখন জনশূন্য।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -