৮২% জঙ্গি ওয়েবসাইট ব্যবহার করে!

নিজস্ব প্রতিবেদক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: দেশের ৮০-৮২ ভাগ জঙ্গি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও অ্যাপস ব্যবহার করে জঙ্গিবাদের পথে ধাবিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-গোপনীয়) মো. মনিরুজ্জামান।

এদের মধ্যে ৫৬ শতাংশ সাধারণ শিক্ষার্থী, ২২ ভাগ মাদ্রাসার পড়াশুনা ছেড়ে জঙ্গিবাদে জড়িয়েছে বলেও জানান তিনি।

সোমবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাওয়ে ইন্টারপোল এবং বাংলাদেশ পুলিশের যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত তিনদিন ব্যাপী চিফ অব পুলিশ কনফারেন্স অব সাউথ এশিয়া অ্যান্ড নেইবারিং কান্ট্রিস অন রিজিওনাল কো-অপারেশন ইন কার্ভিং ভায়োলেন্ট অ্যাক্সট্রিমিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম-এ এক প্রোজেকশনে এ জরিপ তুলে ধরেন তিনি।

সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল- ‘Regional Cooperation in Curbing Violent Extremism and Transnational Crime’.

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে এ পর্যন্ত গ্রেফতার হওয়া ২৫০ জঙ্গির সঙ্গে কথা বলে এ জরিপ করেন মনিরুজ্জামান।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘জঙ্গিরা আগে শুধুমাত্র ফেসবুকসহ কয়েকটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যোগাযোগ করতো। তবে এখন তারা কৌশল পাল্টে নতুন নতুন অ্যাপস ব্যবহার করছে। যে কারণে তাদের ট্রেস বা শনাক্ত করতে গোয়েন্দাদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। এজন্য প্রযুক্তিখাতে বিনিয়োগ ও প্রশিক্ষণ বাড়াতে হবে।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বাংলাদেশ পুলিশের সোমবার বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে এসব বিষয় উঠে আসতে পারে বলেও জানান তিনি।

সম্মেলনে আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ভুটান, ব্রুনাই, চীন, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, নেপাল,দক্ষিণ কোরিয়া, শ্রীলংকা, ভিয়েতনাম এ ১৪টি দেশের পুলিশ ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করছেন।

এছাড়া ইন্টারপোল, ফেসবুক, ইন্টারপোল গ্লোবাল কমপ্লেক্স ফর ইনোভেশন (আইজিসিআই), যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই), আসিয়ানাপোল (ASEANAPOL), ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ট্রেনিং অ্যাসিসট্যান্স প্রোগাম (আইসিআইটিএপি)সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -