যে কারণে ভুলেও দাঁড়িয়ে পানি পান করবেন না!

লাইফস্টাইল ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: পানির অপর নাম জীবন। কিন্তু সেই পানি খাওয়ারও রয়েছে কিছু নিয়ম কানুন। নিয়ম না মানলে উপকার যতটা হবে, ক্ষতি তার চেয়ে কম হবে না মোটেও! মনে রাখবেন দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কখনোই পানি পান করা উচিৎ নয়। এতে নানাভাবে শরীরের ক্ষতি হয়। যেমন-দাঁড়িয়ে পানি পান করলে পাকস্থলিতে ক্ষত সৃষ্টি হয়। পানি সরাসরি পাকস্থলিতে গিয়ে আঘাত করে। সেই সঙ্গে স্টমাকে উপস্থিত অ্যাসিডের কর্মক্ষমতাও কমিয়ে দেয়। ফলে বদ হজমের আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে পাকস্থলির কর্মক্ষমতা কমে যাওয়ার কারণে তলপেটে যন্ত্রণাসহ আরও নানা সব শারীরিক অসুবিধা দেখা দেয়।

দাঁড়িয়ে পানি/জল খাওয়ার সঙ্গে আর্থ্রাইটিসের সরাসরি যোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে শরীরের অন্দরে থাকা কিছু উপকারী রাসায়নিকের মাত্রা কমতে শুরু করে। ফলে জয়েন্টের কর্মক্ষমতা কমে যাওয়ার কারণে এই ধরনের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। প্রসঙ্গত, যারা ইতিমধ্যেই এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন তারা ভুলেও এই কুঅভ্যাসটি রপ্ত করবেন না! তাহলে কষ্ট বাড়বে বই কমবে না। একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে জল খেলে একাধিক নার্ভে প্রদাহ সৃষ্টি হয়। ফলে কোনও কারণ ছাড়াই মানসিক চাপ বা অ্যাংজাইটি বাড়তে শুরু করে।

দাঁড়িয়ে পানি/জল খাওয়ার সময় শরীরের অন্দরে থাকা একাধিক ফিল্টার ঠিক মতো কাজ করতে পারে না। ফলে পানীয় জলের মধ্যে থাকা একাধিক ক্ষতিকর উপাদান প্রথমে রক্তে গিয়ে মেশে, তারপর সেখান থেকে কিডনিতে এসে জমা হতে শুরু করে। ফলে ধীরে ধীরে কিডনির কর্মক্ষমতা কমে গিয়ে এক সময় কিডনি ড্যামেজের সম্ভাবনা দেখা দেয়।

দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় পানি/জল খেলে তা সরাসরি ইসোফেগাসে গিয়ে ধাক্কা মারে। ফলে এমনটা হতে থাকলে এক সময়ে গিয়ে ইসোফেগাস এবং পাকস্থলির মধ্যেকার সরু নালীটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ফলে গ্যাস্ট্রো ইসোফেগাল রিফ্লাক্স ডিজজ বা ডি ই আর ডি-এর মতো রোগ শরীরে এসে বাসা বাঁধে।

একাধিক কেসস্ট্যাডিতে দেখা যায়, দাঁড়িয়ে পানি পান করলে করলে শরীরের একাধিক জায়গায় বাধা পেতে পেতে শেষে স্টমাকে এসে যেটুকু জমা হয়, তাতে চাহিদা মেটে না। ফলে বার বার তেষ্টা পেতে থাকে।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -