সাময়িক ‘অস্ত্রবিরতি’র ঘোষণা আরসা’র

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: মানবিক কারণে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সাময়িক অস্ত্রবিরতি ঘোষণা দিয়েছে রোহিঙ্গা বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা)। শনিবার (০৯ সেপ্টেম্বর) এক বিবৃতিতে এক মাসের জন্য এ যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দেয় বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

বিবৃতিতে বলা হয়, রাখাইনে ত্রাণ সংস্থাগুলোর তৎপরতায় সহায়তা এবং সেখানকার মানবিক পরিস্থিতিকে স্বাভাবিক করতে যুদ্ধবিরতির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকেও যুদ্ধবিরতি পালনের আহ্বান জানিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত সব মানুষকে মানবিক সহায়তা প্রদানের অনুমতি দিতে বলেছে আরসা। যুদ্ধবিরতি কালে সব জাতি ও ধর্মের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে আবারও মানবিক সহায়তা প্রদান শুরু করতে সংশ্লিষ্ট সব ত্রাণ সংস্থাকে আরসা ব্যাপকভাবে উৎসাহিত করছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী কর্তৃক রোহিঙ্গা মুসলিমরা ধারাবাহিকভাবে যে বৈষম্য-অত্যাচার-নিপীড়নের শিকার হয়ে সশস্ত্র সংগ্রামের ঘোষণা দেয় আরসা।  গত ২৫ আগস্ট ভোররাত থেকে রাখাইন রাজ্যে সীমান্তরক্ষী পুলিশের (বিজিপি) সঙ্গে আরসার সংঘাত শুরু হয়। এতে নিরাপত্তা বাহিনীর ১২ সদস্যসহ শতাধিক রোহিঙ্গা নিহত হন। যার কারণে প্রায় ৩ লাখ রোহিঙ্গা মুসলমান বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়। শরণার্থীর স্রোত এখনো অব্যাহত আছে। সীমান্তের দুপাড় জুড়েই তৈরি হয়েছে এক মানবিক পরিস্থিতি।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -