রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ৪০০ কোটি টাকা খরচ করবে তুরস্ক

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: মিয়ানমারের সেনা নির্যাতন থেকে বাঁচতে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের আবাসন ও স্বাস্থ্যখাতে তুরস্ক ৪০০ কোটি টাকা ব্যয় করবে বলে জানিয়েছেন দেশটির উপপ্রধানমন্ত্রী রিসেপ আকদাজ।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) কক্সবাজারে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তার সঙ্গে স্ত্রী সায়মা আকদাজ, তুরস্কের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রধান মেহমেত গুলোগলু ও বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তুর্কি উপপ্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের জন্য ক্যাম্প নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি বলেন, ‘তুরস্ক রোহিঙ্গাদের জন্য ক্যাম্প, ভবন ও হাসপাতাল নির্মাণ করতে আগ্রহী। এজন্য তুরস্ক ৪০ থেকে ৫০ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করবে। বাংলাদেশ সরকার জায়গা নির্দিষ্ট করলে তুরস্ক নির্মাণকাজ শুরু করবে।’

প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন বলে তিনি জানান। তিনি আরও বলেন, ‘মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে উদ্যোগ নেবে তুরস্ক।’
 
হামলা ও নির্যাতনের শিকার হয়ে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের অবস্থা এরই মধ্যে দেখেছেন তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোয়ান। গত ৭ সেপ্টেম্বর তিনি কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলায় রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

রোহিঙ্গাদের ওপর এই ধরনের নির্যাতনকে তুরস্ক ‘গণহত্যা’ বলে অভিহিত করেছে। গত ৩ সেপ্টেম্বর এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য সীমান্ত খুলে দিতে বাংলাদেশের প্রতি আহ্বান জানান তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসোগলু।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -