রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তন বন্ধেই সামরিক অভিযান বার্মার: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের প্রত্যাবর্তন বন্ধের উদ্দেশ্যেই মিয়ানমার রাখাইনে সামরিক অভিযান চালিয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। বুধবার জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক কমিশন এক প্রতিবেদনে জানায়, গত মাসে বাংলাদেশে এসেছে এমন ৬৫ জন রোহিঙ্গা সাক্ষাৎকার নিয়েছেন তাদের প্রতিনিধি। ওই সব রোহিঙ্গারা জানিয়েছে, ২৫ আগস্ট পুলিশ পোস্টে হামলার আগেই মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধন শুরু করে। তারা পুরুষদের পাশাপাশি নারী ও শিশুদের হত্যা এবং ধর্ষণ করে। রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানকে পাঠ্যপুস্তকে জাতিগত নিধন হিসেবে অভিহিত করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনের প্রধান জেইদ আল-হুসেইন। জেনেভা অফিসের সর্বশেষ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী শুধু রোহিঙ্গাদের রাখাইন রাজ্য থেকে তাড়ানোর উদ্দেশ্যেই সামরিক অভিযান চালায়নি। বরং বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গারা যাতে মিায়ানমারে ফেরত যেতে না পারে সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। প্রসঙ্গত, গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে মিয়ানমারের সেনা অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ৫ লাখের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -