রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে দ্বিপক্ষীয় চুক্তির প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় চুক্তির প্রস্তাব করা হয়েছে। একই সঙ্গে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশকে আশ্বস্ত করেছে মিয়ানমার।

সোমবার (২ অক্টোবর) দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চির দফতরের মন্ত্রী কিউ টিন্ট সোয়ের সঙ্গে এ সংক্রান্ত এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বৈঠক শেষে বের হয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দুদেশের মধ্যে আলোচনা খুবই ফলপ্রসূ হয়েছে। মিয়ানমার তাদের দেশের নাগরিক অর্থাৎ রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে সম্মত হয়েছে। এ জন্য দুই দেশ একটি যৌথ চুক্তি ও ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করবে। চুক্তির আলোকে ওয়ার্কিং গ্রুপ যাচাই-বাছাই করে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাবে। আমি এ আলোচনায় খুবই আশাবাদী।’

তিনি বলেন, ‘বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকট ছাড়াও দুই দেশের সীমান্তে নিরাপত্তা ইস্যুসহ দ্বিপক্ষীয় বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘নিরাপত্তা ইস্যু নিয়ে আলোচনা করতে কিছুদিনের মধ্যে আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমার সফরে যাবেন। বৈঠকে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতির বিষয়টিও মিয়ানমারকে জানানো হয়েছে।’

এর আগে সকাল ১১টায় শুরু হওয়া বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্রসচিব মো. শহীদুল হক, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্যসচিব ড. কামাল আবদুল নাসের প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। আর মিয়ানমারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী ছাড়াও দেশটির উচ্চপর্যায়ের দুই কর্মকর্তা ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২৫ আগস্ট রাখাইনে মিয়ানমার নিরাপত্তাবাহিনীর তল্লাশিচৌকিতে হামলার পর থেকে এ পর্যন্ত পাঁচ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। তাদের খাদ্য ও আবাসন নিশ্চিত করতে কাজ করতে মানবিক সহায়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। বহির্বিশ্ব থেকেও রোহিঙ্গাদের জন্য আসছে ত্রাণ। সব মিলে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -