‘গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে বিজয় সুনিশ্চিত’

নিজস্ব  প্রতিবেদক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমদ আজম খান বলেছেন, ‘বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ছিলেন একজন ক্ষণজন্মা পুরুষ। তিনি বাংলাদেশকে বিশ্বের মানচিত্রে গৌরবময় স্থানে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ইতিহাসের রাখাল রাজা শহীদ জিয়া ছাড়া বাংলাদেশের ইতিহাস রচনা সম্ভব নয়।’

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার চেতনা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার চলমান সংগ্রামে দেশপ্রেমিক ও জাতীয়তাবাদী শক্তির বিজয় সুনিশ্চিত। আগামী দিনে সহায়ক সরকারের অধীনে ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য দেশের মানুষ মুখিয়ে আছে ।’

শুক্রবার (১৬ জুন)ডিআরইউ মিলনায়তনে জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী বন্ধু দল আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আহমদ আজম খান বলেন, ‘জাতি নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন চায়। আর সেই নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনে নয়, হবে সহায়ক সরকারের অধীনে। যারা বলেন সহায়ক সরকার সংবিধানে নেই তারা নিজেরাইতো সংবিধান মানেন না। তারা নিজেরাই অসাংবিধানিক সরকার। সুতরাং সংবিধানের দোহাই দিয়ে জন দাবিকে উপেক্ষা করা যাবে না।’

আলোচনা সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, ‘যারা শহীদ জিয়ার চরিত্র হনন করেন তাদের মনে রাখা উচিত আজকের আওয়ামী লীগের পুনঃজীবন দিয়েছিলেন তিনি। ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বরের পর যদি জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় না এসে কর্নেল তাহের আসতেন তাহলে জাসদ আর গণবাহিনীর হাতে আ’লীগারদের জীবন দিতে হতো। আজকে ববঙ্গবন্ধুর নাম স্মরণ করার লোকও থাকতো না।’

ন্যাপের মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, ‘জিয়াউর রহমান শাহাদাতবরণ করেছিলেন, পরাজিত হননি। আজকের শহীদ জিয়াকে পরাজিত করার ষড়যন্ত্র চলছে। স্বাধীনতার চেতনা গণতন্ত্রকে আজ বাক্সবন্দি করা হচ্ছে। সারা দেশে এক শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজ করছে। এই অবস্থা থেকে জনগণ মুক্তি চায়। আর মুক্তি আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন দেশমাতা খালেদা জিয়া।’

বন্ধু দলের সভাপতি শরীফ মোস্তফাজামান লিটুর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টি (জাফর) প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লিংকন, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জিনাফ সভাপতি মিয়া মো. আনোয়ার, দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রাকিবুল ইসলাম রিপন, বন্ধু দলের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ আহমেদ জিয়া, সহ-সভাপতি খবিরউদ্দিন রেজা, ইঞ্জিনিয়ার জসিমউদ্দিন রেজা প্রমুখ।

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -