নির্বাচন কমিশনের চাঞ্চল্যকর নিয়োগ-পদোন্নতিতে দেশবাসী বিস্মিত: বিএনপি

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের নিয়োগ-পদোন্নতির বিষয়ে কমিশনের নিয়োগ-পদোন্নতি কমিটির যিনি প্রধান; তিনিই এ বিষয়ে কিছু জানেন না। আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা দেশবাসীর মধ্যে বিস্ময় সৃষ্টি করেছে।
 
রিজভী বলেন, বদলি-পদোন্নতির বিষয়ে ইসির নিয়োগ, পদোন্নতি, প্রশাসনিক সংস্কার ও পুনর্বিন্যাস এবং দক্ষতা উন্নয়ন কমিটির প্রধান নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার ইসির সচিবকে নোট দিয়েছেন। এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা দেশবাসীর মধ্যে বিস্ময় সৃষ্টি করেছে। এতে স্বয়ং ইসি’র অনেক কর্মকর্তাও ক্ষুব্ধ হয়েছেন। এই ঘটনায় কমিশনের শুধু ভাবমূর্তিই নষ্ট হয়নি, বরং নির্বাচন কমিশনের কর্মকাণ্ড বিশাল প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছে।
 
বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ কথা বলেন। সাম্প্রতিক ইস্যুগুলোতে বিএনপির অবস্থান জানাতে এ নিয়মিত সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়।
 
বিএনপি বলেন, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং ডিসেম্বর থেকে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার প্রাক্কালে অশুভ উদ্দেশে এই পরিকল্পিত গণবদলি ও পদোন্নতির ঘটনা ঘটানো হয়েছে কি-না সেটি নিয়ে সবার মনে বড় ধরনের প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে মাঠ প্রশাসনের এই ব্যাপক পরিবর্তন একটি সুদূরপ্রসারী নীল নকশারই অংশ। আগামী নির্বাচনগুলোকে প্রভাবিত করার জন্যই একটা চক্রান্তজাল বিস্তারের আলামত কি-না সেটাই দেশের ভোটারদের এখন ভাবিয়ে তুলেছে।’
 
রিজভী রামপাল বিদ্যুেকন্দ্র নির্মাণে সরকার ‘একগুঁয়ে নীতি’ নিয়েছে অভিযোগ করে বলেন, কয়লা পুড়িয়ে রামপাল বিদ্যুেকন্দ্র স্থাপনের বিরুদ্ধে জাগ্রত দেশবাসী প্রতিবাদমুখর। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে মানববসতি অনিবার্য ধ্বংসের মুখে পড়বে। প্রাকৃতিক জীববৈচিত্র্য নির্মূল হয়ে যাবে। রামপাল বিদ্যুত্ প্রকল্পের কারণে সুন্দরবনের বিশ্বঐতিহ্য চরম হুমকির মধ্যে পড়বে।
 

FacebookTwitterDiggStumbleuponRedditLinkedinPinterest
Pin It
এই পাতার আরো খবর -