1. azadkalam884@gmail.com : A K Azad : A K Azad
  2. bartamankantho@gmail.com : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম
  3. cmisagor@gmail.com : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম
  4. hasantamim2020@gmail.com : হাসান তামিম : হাসান তামিম
  5. khandakarshahin@gmail.com : Khandaker Shahin : Khandaker Shahin
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১২:১৭ পূর্বাহ্ন
১০ বছরে বর্তমানকণ্ঠ-
১০ বছর পদার্পণ উপলক্ষে বর্তমানকণ্ঠ পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা....

‘দেশের অর্থনীতি ধ্বংস হয়েছে বিএনপির আমলে’

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,শুক্রবার,১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ : সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, আমাদের দেশের মূল অর্থনীতির ধ্বংস হয়েছে বিএনপির আমলে। শুধু তাই নয় পাট ধ্বংসের শুরুও হয় তাদের আমলে। অথচ খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দেশে আজ আন্দোলন হচ্ছে। পত্র পত্রিকায় লেখা লেখি হচ্ছে। কিন্তু পাটের জন্য কেউ আন্দোলন করছে না।

শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় ফেডারশনের সাবেক সভাপতি হাফিজুর রহমান ভূইয়ার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর স্মরণসভায় তিনি এ সব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে জাতীয় ফেডারশন সংগঠন।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার সময়ে পাট রক্ষার দাবিতে আমরা আন্দোলন করেছি। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তখন বিরোধী নেত্রী। তিনি সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, পাট কল বন্ধ করা যাবে না। করলে দেশের মূল অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে যাবে। কিন্তু তারা (বিএনপি) সব মিল বন্ধ করে দেয়। মিল বন্ধ ও পাটরক্ষায় আন্দোলরত শ্রমিকদের উপরে গুলি চালিয়ে ১৭ জন শ্রমিক নেতাকে হত্যা করে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কয়েকটা মিল চালু করলেও তা এখন ভালো ভাবে চলছে না উল্লেখ করে মেনন বলেন, পাট মিল যেগুলো বর্তমান সরকার চালু করেছে তা ভালোভাবে চলছে না। এর কারণ হলো শ্রমিকদের বেতন ভালভাবে দিচ্ছে না । কারো কারো এক দেড় মাসেরও বেতন বাকি রাখছে মালিক পক্ষ । এভাবে বেতন না দিলে শ্রমিকরা কাজ করবে কেমনে। যে কারণে মিলগুলো আবার বন্ধ হবার উপক্রম হয়েছে।

অর্থমন্ত্রণালয় পাটের জন্য কোন অর্থ দিবে না এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে হাজার হাজার টন পাট মজুদ থাকলেও তা রপ্তানি করার কোন বেবস্থা করা হচ্ছে না। অর্থমন্ত্রণালয়কে বার বার অনুরোধ করেছি । কিন্তু পাটের জন্য কোন অর্থ তারা ছাড়বে না। অর্থ ছাড়ে তখন যখন দেখা যায় পাটের সময় শেষ। আর এ কারণেই দেশে পাট উৎপাদন কমে গেছে।

তিনি দাবি করেন আমাদের পাট ভারত হয়ে ভিয়েতনামে যায় কিন্তু আমরা সরাসরি রপ্তানি করতে পারি না। এ রপ্তানি করার জন্য দেশে কারো কোন উদ্যোগ নাই। কোন উদ্যোগ থাকলে আমরা নিজেরাই রপ্তানি করে বেশি বৈদেশিক মুদ্রা আয় করতে পারতাম।




এই পাতার আরো খবর

















Bartaman Kantho © All rights reserved 2020 | Developed By
Theme Customized BY WooHostBD