বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৩:১৩ পূর্বাহ্ন

কলেজছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা, অতঃপর মামলা

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৪২ পাঠক
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৩:১৩ পূর্বাহ্ন

সাভার (আশুলিয়া),বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০১৭: রাজধানীর অদূরে সাভারের আশুলিয়ায় এক কলেজছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসান খানের ভাতিজা সাজ্জাত হোসেন আকাশের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার (০৪ ডিসেম্বর) ভুক্তভোগী নিজেই বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। অভিযুক্ত আকাশ আশুলিয়ায় উত্তর গাজীরচট এলাকার সাখাওয়াৎ হোসেন খানের ছেলে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কলেজছাত্রী জানান, বখাটে আকাশ কলেজে যাওয়া আসার পথে প্রায় প্রতিদিনই তাকে উত্যক্ত করার চেষ্টা করতো। তার পরিবার ও চাচা শাহাদাত খানকে জানিয়েও কোনও প্রতিকার পাওয়া যায়নি। গত ১ ডিসেম্বর বিকেলে বাসা থেকে বের হলে আকাশও তার পিছু নেয়। বুড়িবাজার এলাকায় সড়কে হঠাৎ আকাশ তার হাত টেনে ধরে। তার সঙ্গে যেতে বলে। এ পর্যায়ে জড়িয়ে ধরে ও টানাহ্যাচড়া শুরু করে। প্রতিবাদ করতে গেলে আকাশ রাস্তা থেকে কাঠের টুকরা তুলে তাকে মারতে থাকে। এসময় চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার জানায়, বিষয়টি নিয়ে আকাশের বাবা মাকে জানালে তারা কোনও প্রতিবাদ না করে ছাত্রীকে উল্টো গালাগালি ও মারধর করেন। বাড়াবাড়ি করলে তার চাচা যুবলীগের নেতা শাহাদাত খানের প্রভাব দেখিয়ে উল্টো ভুক্তভোগী মেয়েটিকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা শাহাদাৎ হোসেন খান মুঠোফোনে বলেন, ‘আমার ভাতিজার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। পাশাপাশি আমার সুনাম নষ্ট করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে একটি মহল।’

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল আউয়াল জানান, আকাশের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও যৌনপীড়নের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পলাতক আকাশকে গ্রেফাতারের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছর আগেও আশুলিয়ায় স্কুলছাত্রীকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ জানালে ছাত্রীর ভাইকে মারধরের অভিযোগে রয়েছে আকাশের বিরুদ্ধে। যদিও তখন স্থানীয়ভাবে মুকলেচা দিয়ে বেঁচে যায় আকাশ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *