সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

‘গুগল প্লে প্রোটেক্ট’-এ আপডেট

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ০ Views পাঠক
শনিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২৩

প্রযুক্তি-সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন থার্ড পার্টি অ্যাপের ওপরও গুগল নিয়ন্ত্রণ নিতে চায়। এক বা দুবার শর্ত লঙ্ঘন করলেই আর অ্যাপে অ্যাক্সেস করা যাবে না।

থার্ড পার্টি অ্যাপ স্ক্যান ও পর্যবেক্ষণ করার জন্য ‘গুগল প্লে প্রোটেক্ট’-এ নতুন আপডেট আনছে গুগল। এটা ব্যবহারকারীকে জানিয়ে দেবে, ফোনে থার্ড পার্টি অ্যাপটি ব্যবহার করা নিরাপদ নাকি সরাসরি ব্লক করে দেওয়া উচিত।

গুগল প্লে প্রোটেক্ট সম্ভাব্য ক্ষতিকারক অ্যাপগুলো ডাউনলোড করার আগে বিশ্লেষণ করে। অ্যান্ড্রয়েড নিয়মিতভাবে অ্যাপগুলোকে ম্যালওয়্যারের জন্য স্ক্যান করে। যেকোনো খারাপ অ্যাপ আনইনস্টল করার জন্য ব্যবহারকারীকে অনুরোধ করে।

সম্ভাব্য ক্ষতিকারক অ্যাপ্লিকেশন (পিএইচএ) আছে কি না তা নির্ধারণ করতে গুগল প্লে প্রোটেক্ট ক্লাউড-ভিত্তিক অ্যাপ ভেরিফিকেশন পরিষেবাগুলো ব্যবহার করে। পিএইচএর প্রমাণের জন্য গুগল প্লে প্রোটেক্ট ডিভাইস স্ক্যান করে। তা ডিভাইসের সব অ্যাপ পরীক্ষা করে।

প্লে প্রোটেক্ট ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনকে ম্যালিশিয়াস বা ভাইরাসযুক্ত অ্যাপ থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করবে। এ ক্ষেত্রে, কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করার পর, গুগল প্লে প্রোটেক্ট প্রথমে সেটিকে স্ক্যান করবে, যেন অ্যাপটি ব্যবহারের জন্য নিরাপদ কি না তা জানিয়ে দিতে পারে ব্যবহারকারীকে।

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে থার্ড পার্টি অ্যাপ ব্যবহার করতে এত দিন নারাজ ছিল গুগল। বিষয়টি নিয়ে ব্যবহারকারীদের একাধিকবার সাবধানও করেছে। অ্যাপ ব্যবহার করলে কোনো বিপদ হতে পারে কি না বা কোনো সমস্যা ছাড়াই অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে কি না, সে সবই ব্যবহারকারীকে জানাবে ‘প্লে প্রোটেক্ট’।

প্রযুক্তি-সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন এভাবে থার্ড পার্টি অ্যাপের ওপরও গুগল নিয়ন্ত্রণ নিতে চায়। এক বা দুইবার শর্ত লঙ্ঘন করলেই আর অ্যাপে অ্যাক্সেস করা যাবে না। তবে থার্ড পার্টি অ্যাপ স্ক্যান করতে পারলে গুগল অনেক ম্যালওয়্যার বাদ দিতে পারবে। ম্যালওয়্যার বাদ দিতে পারলে অনেকটাই সুবিধা।

চলতি বছরের শুরুতে গুগল বলেছিল, ব্যবহারকারী অন্য অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ইনস্টল করলে গুগল বাধা দেবে না। তাতে কোনো ম্যালওয়্যার আছে কি না, সেটাও দেখতে যাবে না। তবে এ অবস্থান থেকে সরে আসল গুগল। সঙ্গে নিশ্চিত করছে, অন্য অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ইনস্টল করার অধিকার ব্যবহারকারীর আছে, যতক্ষণ না তা কোম্পানির নিরাপত্তার মানদণ্ডকে বিঘ্নিত করে।

স্মার্টফোনে ইনস্টল করা সব অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে প্রায় এক-তৃতীয়াংশ অ্যাপই ব্যবহার কর হয় না। যে কারণে অব্যবহৃত অ্যাপ্লিকেশন ডিভাইসের ব্যাকগ্রাউন্ডে জমা হয়। এই অব্যবহৃত অ্যাপগুলোকে ব্যবহার না করলেও, প্রতিনিয়ত ফোনের ডেটা অ্যাক্সেস করেই যায় অ্যাপ্লিকেশনগুলো। এই ধরনের যেকোনো প্রোগ্রাম ব্যক্তিগত ডেটা সংগ্রহ করার প্রবণতা ডিভাইস ও ডিভাইস ব্যবহারকারীর ক্ষেত্রে নিরাপদ নয়।

টেক জায়ান্ট গুগল এই বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে একটি বিশেষ ফিচার চালু করার কথা জানিয়েছে। যা অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহারকারীকে অব্যবহৃত অ্যাপ থেকে সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করবে বলে দাবি করছে প্রতিষ্ঠানটি। ক্রোম আনবক্সডের একটি সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, ‘গুগল প্লে প্রোটেক্ট’ আপডেট সেই অ্যাপগুলো থেকে ডিভাইস ইনফরমেশনের অনুমতি সরিয়ে দেবে, যেগুলোকে ব্যবহারকারী দীর্ঘ সময়ের জন্য ব্যবহার করেনি। এই ফিচারটিকে অ্যান্ড্রয়েড ১১ এবং তার ওপরের ভার্সনে ইতোমধ্যেই চলে এসেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই পাতার আওর সংবাদ