শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১:১৬ অপরাহ্ন

নরসিংদীতে একই দিনে লাশের মিছিলে ৯ জন || সড়কে নিরাপত্তার দাবীতে নিসচা’র মানববন্ধনের ডাক

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৪৪ পাঠক
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১:১৬ অপরাহ্ন

মো:আল-আমিন সরকার,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,শনিবার,০৭ এপ্রিল ২০১৮: নরসিংদীতে একই দিনে পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় লাশের মিছিলে যোগ দিল ৯ জন। শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পযর্ন্ত নরসিংদীর রায়পুরার চারারবাগ, সদর উপজেলার মাধবদী ও বাগহাটায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে রায়পুরার চারারবাগ এলাকায় যাত্রিবাহী বাসের চাপায় চার মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- শিবপুরের ঘোড়ার গাঁও এলাকার সুলতান মিয়ার ছেলে ইয়ামিন (২৪), রায়পুরার মরজাল পশ্চিম পাড়ার মৃত হাফিজ উদ্দিনের ছেলে ডালিম (১৬), একই এলাকার সুরুজ মিয়ার ছেলে সোহাগ (১৭) এবং আসাদ মিয়ার ছেলে রমজান (১৬)। নিহতরা সবাই রাজমিস্ত্রির কাজ করতো বলে জানা যায়।

পুলিশ জানায়, কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী অনন্যা পরিবহনের একটি বাস ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে রায়পুরার চারাবাগে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে মোটরসাইকেলটির চার আরোহী ঘটনাস্থলেই মারা যায়।
রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন জানান,নিহতরা রাজমিস্ত্রির কাজ করতে ভৈরব যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনার শিকার হয়।

অপরদিকে সদর উপজেলার মাধবদীতে বেপরোয়া বাসের চাপায় এক ব্যবসায়ীসহ ৩জনের মৃত্যু হয়েছে। বেলা ১টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে মাধবদীর পল্লীবিদ্যুৎ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা একটার দিকে ঢাকা থেকে হবিগঞ্জগামী অগ্রদূত পরিবহনের একটি বাস পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের সামনে এক রিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই রিকশাটির যাত্রি মকবুল হোসেনসহ এর চালক নয়ন(২৪) মারা যায়। বেপরোয়া বাসটি কিছুদুর এগিয়ে মাধবদীর পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দুটি প্রাইভেটকার ও দুটি রিকশাকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার পাশে রাখা লাকড়ির স্তুপে বাঁধা পেয়ে থেমে যায়।
এতে আরো ২ জন গুরুতর আহত হলে তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তাদের মধ্য থেকে রতন(৪২) নামে এক রিকশার যাত্রী মারা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী তানভীর নামে দুর্ঘটনার শিকার একজন প্রাইভেটকার চালক জানান, বাসটির চালক বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালাচ্ছিল। ঘটনাস্থলের তিন কিলোমিটার আগে নারায়ণগঞ্জের পুরিন্দা এলাকায় আরও একটি প্রাইভেটকারের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধিয়ে এসেছিল বাসটি। তানভীর তার গাড়ি নিয়ে জ্যামের মধ্যে বাসটিকে পেছনে ফেলে মাধবদী চলে এসে পুনরায় ঐ বাসের দ্বারাই আক্রান্ত হয়। বাসটির বেপরোয়া গতির কারনেই দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে তিনি জানান। নিহত মকবুল হোসেন মাধবদী পৌরসভার টাটাপাড়া এলাকার বাসিন্দা এবং বাবুরহাটের মদিনা থ্রীপিসের মালিক বলে জানা যায়। তিনি কারখানা থেকে রিকশায় করে বাজারে যাচ্ছিলেন বলে জানা যায়। নিহত নয়নের বাড়ি আমদিয়া ইউনিয়নের বেলাটি গ্রামে ও রতনের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইলিয়াছ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘাতক বাসটিকে আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছে।

এর কিছুক্ষণ আগে বেলা সদর উপজেলার বাগহাটা মসজিদের সামনে প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকার বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রী ছিটকে পড়ে যায়। এসময় তাদেরকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে দুজনই মারা যান। এলাকাবাসী প্রাইভেটকারটি আটক করলেও চালক পালিয়ে যায়।

নিহতরা হলেন- সদর উপজেলার মাধবদীর বিরামপুর গ্রামের আমিনুল ইসলাম (৩৫), তার স্ত্রী মানসুরা বেগম (২৫)। নিহত আমিনুল দীর্ঘদিন প্রবাস জীবন কাটিয়ে সম্প্রতি দেশে এসে বিয়ে করেন বলে তার পরিবার জানায়। নতুন কেনা মোটরসাইকেলে করে নতুন বউকে নিয়ে ঘুরতে গিয়ে দু’জনই না ফেরার দেশে পাড়ি জমান।
নরসিংদী সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তাপস ঘটনাটি নিশ্চিত করেন।
এদিকে, নরসিংদীতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে মাধবদী, শিবপুর, রায়পুরাসহ বিভিন্ন অংশে আশঙ্কাজনকভাবে দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধনের উদ্যোগ নিয়েছে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)র জেলা ও উপজেলা শাখা। আগামী রবিবার (৮এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় নরসিংদী প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান মানববন্ধন বাস্তবায়ন পরিষদের আহ্বায়ক মো. ফয়সাল সরকার ও খন্দকার শাহিন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *