সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

সিটি নির্বাচনে নিজেদের প্রার্থীকে মাঠে রাখতে মরিয়া বিএনপি: নানক

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৭৯ পাঠক
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, বিএনপি মুখ দিয়ে নির্বাচন বর্জনের কথা বললেও ভেতরে ভেতরে নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে মাঠে রাখতে মরিয়া।

তিনি বলেন, আমরা বিএনপির নির্বাচনে অংশগ্রহণকে স্বাগত জানাতে চাই। কিন্তু তাদের দ্বৈত নীতিকে ধিক্কার জানাই। নির্বাচন কমিশন যেকোনো মূল্যে সিটি নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠানের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কিন্তু জনসমর্থন হারানো বিএনপি এই নির্বাচনে নাখোশ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিলেট নগরের একটি কনভেনশন সেন্টারে সিলেট সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর সমর্থনে আয়োজিত জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে নানক এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ নির্বাচনমুখী দল। সুতরাং বৃহৎ এই দলে একাধিক যোগ্য প্রার্থীই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চাইবেন। কিন্তু দিন শেষে দলের মনোনীত প্রার্থীর পক্ষেই সবাই কাজ করে যাবেন একযোগে। এটাই আওয়ামী লীগ।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে নানক বলেন, সিলেটের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর একটি বিশেষ দুর্বলতা রয়েছে। যে কারণে সিলেটের মাটি ও মানুষের কল্যাণে তিনি বরাবরই আন্তরিকতার পরিচয় দিয়ে গেছেন। দলীয় মানুষ না থাকার পরও তিনি উজাড় করে দিয়েছেন সবকিছু। কিন্তু দুর্ভাগ্য অপরিকল্পিত উন্নয়নের খেসারত স্বরূপ নগরবাসীকে এখনো দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

তিনি শ্রীভূমি সিলেট রক্ষায় এবার দলীয় নেতাকর্মীদের নির্বাচনী যুদ্ধে মাঠে নামার আহ্বান জানান।

নানক বলেন, দলে খন্দকার মোশতাকের অনুসারী যেমন রয়েছে, তেমনি মুজিব আদর্শের লড়াকু এবং ত্যাগী কর্মীরাও রয়েছেন। মোশতাক বাহিনীর কারণেই বিগত দিনে এই নগরের অভিভাবক বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে হারতে হয়েছে। এবার সেই সুযোগের পুনরাবৃত্তি দেখতে চায় না আওয়ামী লীগ। দলের প্রতিটি ওয়ার্ডে সভাপতি এবং সম্পাদকের ভোটকেন্দ্রগুলোতে সজাগ দৃষ্টি থাকবে আওয়ামী লীগের। তাদের ভোটকেন্দ্রের ফলাফল অনুযায়ী পুরস্কার এবং তিরস্কার ব্যবস্থার রাখা হয়েছে। এমন কোনো কর্মকাণ্ড করবেন না যাতে রংপুরের পরিণতি ভোগ করতে হয়।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে এবং জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী দুলাল ও মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এটিএম হাসান জেবুলের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন।

এছাড়া সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধূরী নাদেল, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী, আজিজুস সামাদ ডন, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট -৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব।

আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সভাপতি ডেইজি সারওয়ার, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনসহ সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *