বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম-
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত আরও ৩৮ ফিলিস্তিনি জেলেনস্কির হোমটাউনে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ৯ বিমান দুর্ঘটনায় ভাইস প্রেসিডেন্ট নিহত: মালাবিতে ২১ দিনের শোক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হত্যা: বিচারের দাবীতে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে মহাসড়ক অবরোধ মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার অস্থিরতাকারীদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি নাগরিক সমস্যা সমাধানে সরকার ও নাগরিকের অংশীদারিত্ব প্রয়োজন: তথ্য প্রতিমন্ত্রী বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র পেল ‘মুনাফিক’ আমাদের দিয়ে রান্না করাতো জলদস্যুরা, খেয়ে ফেলতো সবই যাতায়াতের দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ পাবে পোশাক শ্রমিকরা আলোচিত সংগীতশিল্পীসহ নিহত ২, পালিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি বাসচালকের

‘সুষ্ঠু নির্বাচনে রাজনৈতিক সমঝোতা প্রয়োজন’

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৪০ পাঠক
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম, বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী ২০১৮: আগামী জাতীয় নির্বাচন যদি সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ করতে হয় তাহলে আমাদের রাজনৈতিক সমঝোতা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন সুজন-সুশাসনের নাগরিক সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার।

বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে রংপুরে সফল নির্বাচনের ধারাবাহিকতায় রক্ষায় করণীয় সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক গোলটেবিল বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

সুজন-সুশাসনের নাগরিক সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, রংপুরে নির্বাচন শুধুমাত্র সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষই হয়নি, নির্বাচনটি ছিল মোটামুটি শান্তিপূর্ণ। শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হওয়ার পেছনে ছিল নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা। নির্বাচন যখন কারচুপির ও র্বিতর্কিত হয়, ঠিক তখনি সহিংসতা সৃষ্টি হয়। রংপুর নির্বাচনে প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি। প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিল বলেই নির্বাচন কারচুপিমুক্ত এবং শান্তিপূর্ণ হয়েছে।

তিনি বলেন, রংপুরে সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়া অন্যতম কারণ হলো সেখানে নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ নিরপেক্ষতা প্রদর্শন হয়েছে। রংপুরে নির্বাচনে কমিশন ৩৩ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ৩৩ জন বিচারক ম্যাজিস্ট্রেট এবং ১১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত ছিল।

হলফনামা নির্বাচন কমিশন গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিলে কিংবা এতে তথ্য গোপন করলে প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করতে হবে। হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিয়ে নির্বাচিত হলে সে নির্বাচন বাতিল বলে গণ্য হবে। হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দেওয়া আইনগত দণ্ডনীয় অপরাধ। তাই নির্বাচন কমিশন হলফনামায় তথ্য যাচাই বাছাই করে কিছু নির্বাচনী প্রার্থী দেওয়া উচিত।

এই গোলটেবিল বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজনু দার। আরো উপস্থিত ছিলেন সুজন সুশাসনের নেতারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *