বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন

“আর নয় টেটাঁযুদ্ধ, এবার হবো ঐক্যবদ্ধ”

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ২২ পাঠক
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,শনিবার,২০ জানুয়ারী ২০১৮:  নরসিংদীর রায়পুরার চরাঞ্চলের চরমধুয়া ইউনিয়নে “আর নয় টেটাঁযুদ্ধ, এবার হবো ঐক্যবদ্ধ” স্লোগানে সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকালে চরমধুয়া নতুন বাজারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

স্থানীয়রা জানান, বছরের পর বছর ধরে রায়পুরা উপজেলার চরাঞ্চলের ৮টি ইউনিয়নের ৬টিতেই আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দফায় দফায় পাল্টাপাল্টি সংঘর্ষ বাড়ি ঘর ভাংচুর, লুটপাট, অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে আসছে। কখনও কখনও এক চরের মানুষ অন্য চরে ভাড়াটিয়া হিসেবে গিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হওয়ায় পুরো চরাঞ্চলেই অশান্তি বিরাজ করে আসছে।

সম্প্রতি চরমধুয়া ইউনিয়নে উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সুযোগ পেলেই একে অপরের উপর হামলা চালাচ্ছে। আগুনে জ্বালিয়ে দেয়া হচ্ছে শত শত বাড়ীঘর, দোকানপাট। দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য নিয়ে দুইপক্ষের এসব সংঘর্ষে জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হলেও প্রশাসনের কোন উদ্যোগ-ই কাজে আসছে না। এরকম সংঘর্ষ লেগেই আছে এলাকাটিতে। এতে বাড়ি ঘর ও সম্পদ হারিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন শত শত মানুষ।

এসব সহিংসতা বন্ধ করে এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী সমাবেশের আয়োজন করেন চরমধুয়া ইউনিয়নের সচেতন মহল। এতে এলাকার বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেন। সমাবেশে আলোচনার মাধ্যমে এলাকায় মাদক ব্যবসা, টেটাঁযুদ্ধসহ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ার কারণ খুজে বের করার চেষ্টা করা হয় এবং এসব টেটাঁযুদ্ধের ফলে জানমালের ক্ষয়ক্ষতির ভয়াবহ পরিস্থিতি তুলে ধরে সাধারণ মানুষকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। চরাঞ্চলের এই ভয়ানক টেটাঁ যুদ্ধ বন্ধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

চরমধুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান আব্দুস সালাম শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মিজান শিকদার, চরমধুয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আহসান শিকদার, ইউপি সদস্য আব্দুল হাশেম, বাদল মিয়া, জামাল মিয়া, মো: শাহজাহান, কাজী জামাদুল, কাজী আব্বাছ উদ্দিন, সাবেক সদস্য মোস্তফা মিয়া, শিক্ষক ধন মিয়া, আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম মস্তুফা, এনজিও কর্মী ফারুক শিকদার, যুবলীগ নেতা লোকমান হোসেন প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *