1. azadkalam884@gmail.com : A K Azad : A K Azad
  2. bartamankantho@gmail.com : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম
  3. cmisagor@gmail.com : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম : বর্তমানকণ্ঠ ডটকম
  4. hasantamim2020@gmail.com : হাসান তামিম : হাসান তামিম
  5. khandakarshahin@gmail.com : Khandaker Shahin : Khandaker Shahin
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন
১০ বছরে বর্তমানকণ্ঠ-
১০ বছর পদার্পণ উপলক্ষে বর্তমানকণ্ঠ পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা....

কাঠালিয়ায় যথাযোগ্য মর্যাদায় জেল হত্যা দিবস পালন

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৪ নভেম্বর, ২০১৮

ঝালকাঠি সংবাদদাতা- বর্তমানকন্ঠ ডটকমঃ
ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে জেল হত্যা দিবস। দিবসটি পালন উপলক্ষে কর্মসূচির অংশ হিসেবে দলীয় কার্যালয়ে দলীয়, জাতীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। শনিবার
সকাল ১০ টায় উপজেলা আওয়ামীলীগ তার অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা কালো ব্যজ ধারন করে দলীয় কার্যলয় বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পন করে ১ মিনিট নিরাবতা পালন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক তরুন সিকদার,দৈনিক সরেজমিন বার্তা পত্রিকার মফস্বল সম্পাদক মোছাদ্দেক বিল্লাহ, কাঠালিয়া উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগনেতা মোস্তাফিজুর রহমান সেন্টু,তরুন লীগ নেতা ফুয়াদ আল ফয়সাল, আওয়ামীলীগনেতা লিটন সিকদার সহ উপজেলা আওয়ামীলীগ এর অঙ্গ সংগঠনের নেতারা শ্রদ্ধা জানান। এসময় উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারন সম্পাদক তরুন সিকদার বলেন, মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘণ বিচার বর্হিভূত হত্যা। ইতিহাসের ঘৃন্যতম বিচার বহির্ভূত হত্যার নিকৃষ্টতম উদাহরণ ১৯৭৫সালে বাংলাদেশে সংঘটিত দু’টি জঘন্যতম হত্যাকাণ্ড। এর একটি ১৫ আগস্ট হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ড অপরটি ৩রা নভেম্বর ঢাকা জেলখানায় অন্তরিণ থাকা অবস্থায় বিনাবিচারে জাতীয় চার নেতার হত্যা কাণ্ড। আজ জেল হত্যা দিবস ! বাঙালী জাতির আরেকটি গভীর শোকের দিন ! এ জাতিকে পুরোপুরি পঙ্গু করার জন্যই ঘাতকরা সেদিন রাতের আঁধারে পৃথিবীর জঘন্যতম এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে ! এ শোকের কি শেষ আছে ! রক্তের দাগ না শুকাতেই খুনিরা এ মর্মান্তিক হত্যাকান্ড ঘটালো। এবং যাদেরকে হত্যা করা হলো, তারা হলেন বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে আমাদের মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনাকারী সফল অধিনায়ক। বঙ্গবন্ধুর সবচেয়ে কাছের মানুষ, যোগ্য উত্তরসূরী।
ঘাতকরা জানতো এই জাতীয় চার নেতা জীবিত থাকলে তারা কোন দিন পার পাবেনা। তাই তারা ৩রা নভেম্বর এ জগন্যতম হত্যাকান্ডে মেতে উঠলো! খুনিরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেও নিজেদেরকে নিরাপদ ভাবতে পারেনি, সব সময় আতঙ্কে ছিল কখন জনতা ফুঁসে উঠে!
কলঙ্ককময় ইতিহাস সৃষ্টির সাথে জড়িত যারা এরাতো এদেশেরই মিরজাফরদের দোসর! মানুষ নামের কলঙ্ক! হায়েনার চেয়েও হিংস্র! যতদিন এই বাংলাদেশ থাকবে , ততদিন ওরা ঘৃণিত হয়ে থাকবে এই বাংলার প্রতিটি ঘরে ঘরে।




এই পাতার আরো খবর

















Bartaman Kantho © All rights reserved 2020 | Developed By
Theme Customized BY WooHostBD