সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

ফ্রান্সে প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে যৌথ কর্মীসভা।

সৈয়দ মুন্তাছির রিমন -প্যারিস, ফ্রান্স । / ১১১ পাঠক
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু আর আমরা সবাই মুজিব সেনা, ভয় করি না বুলেট বোমা কিংবা প্রধানমন্ত্রীর আগমণ শুভেচ্ছা স্বাগতম।’ শ্লোগানে মূখরিত হয়ে মানবতার রাজধানী ফ্রান্সের প্যারিস নগরীতে বাঙ্গালী কমিউনিটি সরব হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরকে আরো প্রাণবন্ত ও সফল করে গড়ে তুলার জন্য এক কর্মী সভার আয়োজন করা হয়। এই কর্মীসভা সমবার ইল দ্যা ফ্রসে এলাকার মেরি দ্যা অভারবিলার এক ভবনে অনুষ্টিত হয়। ফ্রান্স আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের যৌথ আয়োজনে এ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামীলীগ সভাপতি নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও ফ্রান্স আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন কয়েছের পরিচালনায় বিশেষ অতিথী হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ কাশেম, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট মামুনুর রশীদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. সাজ্জাদ হায়দার, সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল কবীর, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কাজী সারোয়ার হোসেন, উপ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সফেক আশফাক তুহিন, যুবলীগের অন্যতম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার কামাল হোসেন প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন দীর্ঘ ২২ বছরের বিরতি শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফ্রান্সে পাঁচ দিনের আনুষ্ঠানিক রাষ্ট্রীয় সফরে আগমন আমাদের সফলতার অংশ। শেখ হাসিনার সফরকে যারা কলুষিত করতে চায় তারা দেশের শত্রু। যারা আমাদের সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রগতি বাধাগ্রস্থ করতে চায় তাদের তালিকা করুন। প্রয়োজনে তাদের ছবি সংগ্রহ করুন। যারা দেশকে ভালবাসবে না, দেশের মানুষকে ভালবাসবে না তাদের দেশে বসবাস করার কোন অধিকার নেই।

এদিকে বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফ্রান্সে নিজের প্রাসাদ এলিজিতে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুরে প্যারিস সফরের প্রথম দিনে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন এলিজি প্রাসাদে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় প্রেসিডেনশিয়াল গার্ডরা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়। এর পর ম্যাক্রন ও শেখ হাসিনা ছবি তোলেন। পরে দুই নেতা একসঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ ও বৈঠক হয়। আগামী ১৩ নভেম্বর প্যারিস থেকে রওনা হয়ে পর দিন সকালে প্রধানমন্ত্রীর দেশে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *