শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১২:০২ অপরাহ্ন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জানাজায় জনসমাগম, ৩ উপজেলার ৮ গ্রাম লকডাউন

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৪৬ পাঠক
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১২:০২ অপরাহ্ন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া:
মহামারি করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে চলমান লকডাউনের মধ্যেই পূর্বঘোষণা ছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার বেড়তলা গ্রামে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের জ্যেষ্ঠ নায়েবে আমির মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজায় ব্যাপক লোকসমাগমের ঘটনায় জেলার ৩টি উপজেলার ৮টি গ্রামকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার রাতে ওই তিন উপজেলার ৮ গ্রামে মাইকিং করে বাসিন্দাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন পালনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

লকডাউন ঘোষিত গ্রামগুলো হলো- জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার খড়িয়ালা, বৈগইর, মৈশাইর, সরাইল উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের শান্তিনগর, সীতাহরণ, বড়ইবাড়ি ও বেড়তলা এবং সদর উপজেলার মালিহাতা গ্রাম।

আগামী ১৪ দিনের মধ্যে এসব গ্রামের কেউ ঘরবাড়ি থেকে বের হলেই তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা নেবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মাসুদ রানা।

তিনি জানিয়েছেন, প্রশাসনের নির্দেশে ওই ৮ গ্রামের বাসিন্দাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। ওই ৮টি গ্রাম লকডাউন করা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে সার্বক্ষণিক পুলিশের টহল থাকবে।

এর আগে গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় সরাইলের জামিয়া রহমানিয়া বেড়তলা মাদরাসায় মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশের বিভিন্ন স্থান ও জেলার শীর্ষ আলেমরা ছাড়াও হাজার হাজার মাদরাসাছাত্র ও সাধারণ মানুষ অংশ নেয়। জানাজায় ইমামতি করেন মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর ছেলে হাফেজ মাওলানা আসাদ উল্লাহ।

করোনার বিস্তার রোধে দেশজুড়ে চলমান অঘোষিত লকডাউনের মধ্যেই মাওলানা জুবায়েরের জানাজায় এই ব্যাপক লোকসমাগম নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তুমুল আলোচনা সমালোচনা চলছে। গত শুক্রবার বিকেল পৌনে ৬টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মার্কাসপাড়ায় নিজ বাড়িতে মারা যান মাওলানা জুবায়ের। তার গ্রামের বাড়ি জেলার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের আলিয়ারায়।

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে গত ১১ এপ্রিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়। জেলায় এখন পর্যন্ত করোনায় ১৬ জন আক্রান্ত ও ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে মাওলানা জুবায়েরের জানাজায় লাখো মানুষের জনসমাগমে ব্যবস্থা নিতে না পারায় সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহদাৎ হোসেন টিটুকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। শনিবার রাতে পুলিশের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) মো. সোহেল রানা গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *