সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন

মির্জা ফখরুল সুন্দর করে মিথ্যা কথা বলেন: হাছান

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৩৫ পাঠক
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭: আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশে আসতে স্কুলে, ব্যাংকের কর্মকর্তাদের চিঠি দেয়া হয়েছে মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সুন্দর করে গুছিয়ে মিথ্যা কথা বলতে পারেন। ১৮ তারিখ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নয় নাগরিকদের পক্ষ থেকে সমাবেশ করা হয়েছে। এই সমাবেশে জন্য কোথাও কোন চিঠি দেয়া হয়নি। কিন্তু মির্জা ফখরুল সাহেব মিথ্যাচার করলেন। তিনি নাকি দেখেছেন বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের তোলা হচ্ছে। মিথ্যাচার করার আগে খোঁজ-খবর নিয়ে বলেন। বেকুবের মত মিথ্যা বলবেন না।’

সোমবার (২০ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে মওলানা ভাসানী ঐক্যজোটের উদ্যোগে মওলানা ভাসানীর ৪১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর ভাষণকে স্বীকৃতি দেয়া বিএনপির নেতারা আনন্দ প্রকাশের বিষয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমি টেলিভিশনে দেখেছি ৭ মার্চের ভাষণকে স্বীকৃতি দেয়ায় বিএনপি নেতারা বলেছেন এটা আনন্দের বিষয়। আপনারা যখন ক্ষমতায় ছিলেন তখন এই ভাষণ বাজালে মাইক কেড়ে নেয়া হতো। মাইক ভেঙে ফেলা হয়েছে অনেকবার। রেডিও টেলিভিশনে কখনো বাজানো হয়নি এই ভাষণ। এখন যখন স্বীকৃতি দিয়েছে তখন তো আপনাদের কোন কথা বলার নাই।’

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে বিএনপির অাপত্তির বিষয়ে আওয়ামী লীগের এই মুখপাত্র বলেন, ‘আপনারা চান আপনাদের পছন্দ মতো সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে। আপনারা জানেন নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তখন সরকার শুধু রুটিন মাফিক কাজ করবে।’

সংবিধান অনুযায়ী আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে সরকারের সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘সংবিধানের একচুলও ব্যতয় হবে না কারো ইচ্ছায়। অন্যান্য দেশে যেভাবে নির্বাচন হয় সেই ভাবেই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপির আবদার পূরণ করাতে হলে সমস্ত পৃথিবীর নিয়মভঙ্গ করতে হবে।’

বিএনপি দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাইছে উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘রংপুরে আপনার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছেন। আপনাদের রাজনীতি হচ্ছে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি। নির্বাচনের সময় আসলে আপনারা ধর্মের কথা বলেন। যারা ইসলাম নিয়ে ব্যবসা করে তাদের ভোট পাওয়ার জন্য। রংপুরের ঘটনা আপনাদের সৃষ্টি।’

মির্জা ফখরুল ক্ষমতার জন্য সামরিক শাসকদের সাথে হাত মিলিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মওলানা ভাসানী কখনো ক্ষমতার রাজনীতি করেননি। অথচ ক্ষমতার লোভে যারা ভাসানীর অনুসারী ছিলেন তাদের অনেকেই সামরিক শাসকদের সাথে হাত মিলিয়েছে। তাদের একজন মির্জা ফখরুল। তিনি আদর্শচ্যুত মানুষ। যারা আদর্শচ্যুত মানুষ তারা রাজনীতিকে কলুসিত করেছে। রাজনীতিকে ক্ষমতার হাতিয়ার বানিয়েছে।’

সংগঠনের আহবায়ক বঙ্গদ্বীপ এম এ ভাসানীর সভাপত্বিতে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা এমএ করিম, অরুন সরকার রানা প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সংগঠনের সদস্য সচিব অধ্যক্ষ বেনজীর আহমদ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *