মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০২:২৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম-
গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত আরও ৩৮ ফিলিস্তিনি জেলেনস্কির হোমটাউনে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ৯ বিমান দুর্ঘটনায় ভাইস প্রেসিডেন্ট নিহত: মালাবিতে ২১ দিনের শোক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হত্যা: বিচারের দাবীতে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে মহাসড়ক অবরোধ মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার অস্থিরতাকারীদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি নাগরিক সমস্যা সমাধানে সরকার ও নাগরিকের অংশীদারিত্ব প্রয়োজন: তথ্য প্রতিমন্ত্রী বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র পেল ‘মুনাফিক’ আমাদের দিয়ে রান্না করাতো জলদস্যুরা, খেয়ে ফেলতো সবই যাতায়াতের দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ পাবে পোশাক শ্রমিকরা আলোচিত সংগীতশিল্পীসহ নিহত ২, পালিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি বাসচালকের

মুসলিম পরিচয়ে প্রেম, ধর্ষণে প্রেমিক গ্রেফতার

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৯৪ পাঠক
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০২:২৫ অপরাহ্ন

চট্টগ্রাম,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭: চট্টগ্রামে মুসলিম পরিচয়ে প্রেম করে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলায় ভণ্ড প্রেমিক পার্থ কর্মকারকে (ছদ্মনাম মামুন) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেলার ফটিকছড়ির ভূজপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষিতা স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

গ্রেফতার পার্থ কর্মকার পেশায় একজন ওষুধ ব্যবসায়ী এবং দুই সন্তানের জনক। ভূজপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহিম তালুকদার এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।’

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার ভূজপুর ফকিরহাট বাজারের ওষুধ ব্যবসায়ী পার্থ কর্মকারের সাথে এক মুসলিম স্কুলছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক হয়। দীর্ঘদিন ধরে পার্থ ‘মামুন’ নাম নিয়ে নিজেকে মুসলিম পরিচয় দিয়ে ভূজপুর ন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

কাজিরহাট কর্মকার পাড়া’র সাধন কর্মকারের ছেলে পার্থ গত ৫ মাস ধরে প্রেমের অভিনয় করে ওই ছাত্রীর সাথে শারিরীক সম্পর্কের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। গত এক মাস আগে মেয়েটি জানতে পারে মামুন একজন হিন্দু ধর্মাবলম্বী এবং বিবাহিত। তখন সে কথিত মামুনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিন্ন করে।

এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয়ে পার্থ প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ খুঁজতে থাকে। গত ১৬ নভেম্বর স্কুলে যাওয়ার পথে রাস্তা থেকে পার্থ মেয়েটিকে জোর করে রাবার ড্যামের পাশের একটি ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে মেয়েটিকে আটকে রেখে ধর্ষণ শেষে পার্থ পালিয়ে যেতে চাইলে স্থানীয়রা তাকে আটক করে ভূজপুর ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে যায়।

এসময় স্থানীয়রা শালিসের কথা বলে (ছেলে ও মেয়ে) দুপক্ষ থেকে স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়। নির্ধারিত দিনে বিচার না হওয়ায় গতকাল রবিবার ১৯ নভেম্বর মেয়েটি’র মা ছখিনা বেগম বাদী হয়ে পার্থ কর্মকারকে আসামি করে ভূজপুর থানায় মামলা (নং-৭) দায়ের করেন।

ভূজপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো.হেলাল উদ্দিন ফারুকী ঘটনার সত্যতা শিকার করে জানান, ধর্ষিতা মেয়েটির মা মামলা দায়ের করার পর রাতেই আসামি পার্থকে গ্রেফতার করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে পার্থ সব ঘটনা স্বীকার করলে তাকে সংশ্লিষ্ট ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে সোমবার আদালতে পাঠানো হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *