রবিবার | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

‘শিশু-কিশোররা যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদে না জড়ায়’

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম, সোমবার, ২৬ মার্চ ২০১৮:
শিশু-কিশোররা যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও মাদকাসক্তে জড়িয়ে না পড়ে সেদিকে সজাগ থাকার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (২৬ মার্চ) সকালে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আয়োজিত শিশু-কিশোর সমাবেশে এ আহবান জানান তিনি।

আজকের শিশুই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিশুদের ভবিষ্যত যেন সুন্দর হয় সেই লক্ষ্য নিয়ে সরকার কাজ করছে। আমরা তোমাদের জন্য বিনামূল্যে বই দিচ্ছি, বৃত্তি দিচ্ছি। সারাদেশে স্কুল প্রতিষ্ঠা করে দিয়েছি। সেখানে কম্পিউটার ও আধুনিক প্রযুক্তির শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া সন্তানের শিক্ষার জন্য এক কোটি ৩০ লাখ মায়ের মোবাইলে টাকা পাঠানো হচ্ছে।

শিশুদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমরাই ভবিষ্যতে দেশ পরিচালনা করবে। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তাই লেখাপড়া শিখে মানুষের মতো মানুষ হবে। দেশের ও মা-বাবার মুখ উজ্জ্বল করবে। দেশকে গভীরভাবে ভালোবাসবে। আমরা যেখানে রেখে যাবো তোমরা সেখান থেকে দেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশকে বিশ্ব সভায় মর্যাদার আসনে নিয়ে আসাই আমাদের লক্ষ্য ছিল। আমরা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে এসেছি। কারও কাছে হাত পেতে নয়, মাথা নত করে নয়, আমরা বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলবো।

এ সময়, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ধারাবাহিকতায় ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়ার আশা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। একইসঙ্গে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে দক্ষিণ এশিয়ার একটি উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

এর আগে শিশু-কিশোর সমাবেশে লাখো কণ্ঠে ধ্বনিত হয় জাতীয় সংগীত। জাতীয় সংগীতের পর প্রধানমন্ত্রী সালাম গ্রহণ করেন শিশু-কিশোর সমাবেশের নেতার কাছ থেকে। পরে তিনি পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে সমাবেশের উদ্বোধন করেন।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *