মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

মাধবদীতে গৃহকর্মী সুরমার লাশ উদ্ধার

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৩২ পাঠক
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক*
বর্তমানকণ্ঠ ডটকম,বৃহস্পতিবার, ২৯ মার্চ ২০১৮: নরসিংদী সদর উপজেলার মাধবদীতে এক গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) বিকাল ৪টায় আড়াইহাজার উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন এর মাধবদীস্থ ফ্ল্যাট বাসা থেকে ওই গৃহকর্মীর গলায় ওড়না পেঁচানো লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত সুরমা আক্তার(১৫) নেত্রকোনার দুর্গাপুর থানার পাথারিয়া এলাকার আবদুল লতিফের মেয়ে।
উদ্ধারের সময় নিহত সুরমার পা মাটিতে লেগে থাকায় এটি আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা এ নিয়ে এলাকাবাসির মাঝে নানা গুঞ্জন শুরু হয়েছে। তাতে সৃষ্টি হয় স্যোসাল মিডিয়ায় মন্তব্যের তোলপার।

জানা যায়, ঘটনার দিন বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে চুলায় ভাত বসিয়ে গৃহকর্তৃ একই বিল্ডিংয়ের ৫ তলায় রোগী দেখতে যান। প্রায় আধা ঘন্টা পর তিনি ফিরে এসে ফ্ল্যাটটি ভিতর থেকে আটকানো দেখে তাকে ডাকাডাকি করেন। দীর্ঘ সময়েও তার কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে দরজা ভেঙ্গে সুরমার লাশ উদ্ধার করে।

এব্যপারে সুরমার বড়ভাই কাশেম জানান, ৬ মাস পূর্বে সুরমা ৪ হাজার টাকা বেতনে এ বাড়িতে কাজ নেয়। কাজ নেয়ার পর থেকেই গৃহকর্তৃ তাকে নানা কারনে বকাঝকা করে বলে অভিযোগ করতো। ঘটনার তিনদিন আগেও সে ফোন করে ভাইকে জানিয়েছিলো শরীর খারাপ থাকার কারনে ঠিকমতো কাজ করতে না পারায় গৃহকর্তৃ তাকে অকথ্য ভাষায় বকাঝকা করে। এর প্রেক্ষিতে তিনি তাকে বাড়িতে চলে যাওয়ার জন্যও বলেছিলেন। ঘটনার দিন বিকালে সুরমার শরীর খারাপ খবর শুনে তিনি মাধবদীর বাসায় এসে বোনের লাশ দেখতে পান। তিনি আরো জানান কাজের চাপের জন্য বোনটাকে অসময়ে লাশ হতে হলো।

বাড়ির মালিক জামাল উদ্দিন চেয়ারম্যান বলেন,বেলা সাড়ে ১২টার দিকে খালিবাসায় গলার ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে সুরমা। তিনি আরো জানান, কয়েক দিন ধরে তার মনটা অনেক মলিন ছিল। তবে কেন সে আত্মহত্যা করলো এব্যপারে তিনি নিজেও হতবাক।
এদিকে এলাকাবাসি ঘটনাটিকে আত্মহত্যা মানতে নারাজ। তারা নিহতের আলামতের ভিত্তিতে এটিকে পরিকল্পিত হত্যা বলে দাবী করছেন।

মাধবদী থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম জানান, প্রাথমিক আলামতের ভিত্তিতে সুরমা আত্মহত্যা করেছে বলেই তিনি জানান। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এব্যপারে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন বাড়ীর মালিক জামাল চেয়ারম্যান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *