বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন

‘‌খালেদার মাফ করার ঘোষণা বছরের সেরা রাজনৈতিক কৌতুক’

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ২৫ পাঠক
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন

নিউজ ডেস্ক,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রবিবারের জনসভায় দেয়া বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, খালেদা জিয়ার জাতির কাছে মাফ না চেয়ে শেখ হাসিনাকে মাফ করে দেয়ার কথা বলাটা বছরের সেরা রাজনৈতিক কৌতুক।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন না করার ঘোষণা, খালেদা জিয়ার ভূতের সরকার প্রতিষ্ঠার চক্রান্ত। বেগম জিয়া এবং তার স্বামী জিয়াই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে, একুশে আগস্টে দুর্ঘটনা ঘটিয়ে, জঙ্গি আক্রমণ করে জঘন্য প্রতিহিংসার রাজনীতি করেছে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে আজ মঙ্গলবার দুপুরে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে খালেদা জিয়ার ভাষণ বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, ২০০৮ সালের পর থেকে তিনি রাজনীতির যে অস্বাভাবিক পথ অনুসরণ করেছেন, তা অব্যাহত রেখেছেন। খালেদা জিয়া মোটেও বদলাননি, শোধরাননি। আজ অবধি যে চক্রান্তের ষড়যন্ত্রের পথে উনি হেঁটেছেন, তার পক্ষেই ওকালতি করেছেন তিনি। সেকারণেই তিনি পরিষ্কার বলেছেন, ‘শেখ হাসিনার অধীনে তিনি নির্বাচন করবেন না’।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, তিনি কখনো সহায়ক সরকারের কথা বলেছেন, কখনো নিরপেক্ষ সরকারের কথা, কখনো নির্দলীয় সরকারের কথা বলেছেন। এ কথা বলার মধ্যদিয়ে তিনি কার্যত সংবিধানের অধীনে নির্বাচন না করে ‘ভূতের সরকার’ এর অধীনে নির্বাচন করে অস্বাভাবিক ‘ভূতের সরকার’ প্রতিষ্ঠার ষড়যন্ত্রের জাল বুনলেন, যা বাংলাদেশের রাজনীতির জন্য অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক হবে। সেনাবাহিনী নিয়ে বেগম জিয়ার বক্তব্যে ষড়যন্ত্রের আভাস রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া নির্বাচনে সেনা মোতায়েন এবং সেনাবাহিনীকে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দেয়ার কথা বলেছেন। এ বিষয়টি আমাদের নির্বাচনী প্রক্রিয়া সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা আছে। নির্বাচন কমিশন প্রয়োজনে সেনাবাহিনীকে কাজে লাগাতেই পারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *