শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ০৩:৫২ অপরাহ্ন

সৌদি আরবে অভিবাসী বাংলাদেশিদের জন্য দূতাবাসের খাদ্য সহায়তা সুপার শপের কুপনে

বর্তমানকণ্ঠ ডটকম / ৪৭ পাঠক
শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ০৩:৫২ অপরাহ্ন

বর্তমানকন্ঠ ডটকম, রিয়াদ, সৌদি আরব : সৌদি আরবে বসবাসরত অভিবাসি বাংলাদেশিদের জন্য খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এ পর্যন্ত প্রায় ১৫০০ (এক হাজার পাঁচশত) অভিবাসি বাংলাদেশীকে এ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সৌদি আরবে ২৩ মার্চ থেকে কারফিউ চলমান রয়েছে। এ অবস্থায় অভিবাসি বাংলাদেশিদের অনেকেই আর্থিক সংকটে পড়েছেন।

প্রথমদিকে চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, তেল, লবন ও সাবানসহ ১০০০ (এক হাজার) ফূড বাস্কেট বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়। চলমান কারফিউ ও চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকায় বিপদগ্রস্ত প্রবাসীদের কাছে বর্তমানে সুপার শপের কুপন মোবাইলে বিতরণ করা হচ্ছে যা দিয়ে প্রবাসীরা সহজেই নিকটস্থ আউটলেট হতে প্রয়োজনীয় সামগ্রী ক্রয় করতে পারবেন।

এর আগে দূতাবাস এক বিজ্ঞপ্তিতে কোনও প্রবাসী বাংলাদেশী যদি চরম খাদ্যাভাবে পড়েন এবং বেতন না পান সেক্ষেত্রে দুতবাসের ইমেইলে অথবা হোয়াটস এ্যাপে তথ্য প্রদানের অনুরোধ জানানো হয়। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আর্থিক সংকটে পড়া আবেদনকারীদের তালিকা তৈরি করা হয়।

দূতাবাস সূত্র জানায় এখন পর্যন্ত প্রায় আট হাজার প্রবাসী খাদ্য সহায়তার জন্য আবেদন করেছেন । তার মধ্যে দেড় হাজার জনের মাঝে সহায়তা দেওয়া হয়েছে । পর্যায়ক্রমে আবেদনকারি সকলের মধ্যে পৌঁছবে এই খাদ্য সহায়তা ।

খাদ্য সহায়তা বিতরণ কার্যক্রম বিষয়ে রাষ্ট্রদূত জানান, যারা সহায়তার জন্য দূতাবাসে আবেদন করেছেন তাদেরকে পর্যায়ক্রমে সহায়তা পৌঁছে দেয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক বর্তমান পরিস্থিতিতে অভিবাসী বাংলাদেশিদের জন্য খাদ্য বিতরণ কার্যক্রম চলমান রাখা হয়েছে বলে তিনি জানান। রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা চেষ্টা করছি বরাদ্দ অনুযায়ী যত বেশি সংখ্যক প্রবাসিকে যেন খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া যায়। এছাড়া এ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশী অভিবাসীরা যেন চাকুরীচ্যুত না হন এ বিষয়ে সৌদি আরবের বিভিন্ন কোম্পানির সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

প্রবাসী বাংলাদেশিরা খাদ্য সহায়তা পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সরকারের সহায়তার অংশ হিসেবে দূতাবাস অভিবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ফুড বাস্কেট বিতরণ শুরু করে গত ১৩ এপ্রিল থেকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *