শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৮ পূর্বাহ্ন

একুশে বই মেলায় সৌদি প্রবাসী লেখক শাহীনুর এর “মায়ায় পোড়ে মাটির মানুষ”

সাগর চৌধুরী / ১৩০ পাঠক
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৮ পূর্বাহ্ন

জীবন জীবিকার তাগিদে দেশ ছেড়ে পরবাসে গিয়ে হাজার ব্যস্ততার মাঝে বাংলা সাহিত্যকে আঁকড়ে ধরে আছেন অনেক বাংলাদেশি প্রবাসী । তাদেরই একজন সৌদি আরব প্রবাসী মো. শাহীনুর ।

উদীয়মান লেখক শাহীনুর এর প্রথম প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ “পাথরের বুকে কান্না” দ্বিতীয় গ্রন্থ রক্তাক্ত প্রান্তর – উপন্যাস, তৃতীয় গ্রন্থ হ্রদয়ের ছোঁয়া – উপন্যাস, চতুর্থ গ্রন্থ মন ছুঁয়েছে – উপন্যাস, পঞ্চম গ্রন্থ খোলা চিঠি – উপন্যাস, ষষ্ঠ গ্রন্থ স্বপ্নযাত্রা – উপন্যাস, সপ্তম গ্রন্থ চোরাবালি শহরের কথা – উপন্যাস, অষ্টম গ্রন্থ পোড়া মন কাব্যগ্রন্থ । বই গুলোতে দেশপ্রেম, বিদ্রোহ, প্রেম ও বিরহের কবিতা, উপন্যাস মলাটবদ্ধ হয়েছে ।

লেখক তার সবশেষ বইটি লেখার উদ্দেশ্য বলেন, মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব । অথচ আমরা আজ পশুর ন্যায় উপনীত হয়েছি । মানুষ আমরা, তবুও নিজেকে উপলব্ধি করার ক্ষমতা আমাদের নেই । অস্বাভাবিক সব কর্মকান্ডের সাথে রিলেশনের নামে একই সাথে একাধিক সম্পর্কে থাকি। খুব সহজেই হই পরির্তন । আজ ভালো লাগা কাল ব্রেকআপে থাকি অনায়াসে । গিভ এন্ড ট্যাকের রিলেশনে স্বার্থ-সিদ্ধির নিম্ন-শ্রেনীর হয়ে যাই। ভেতর হতে ভালোবাসা কি, আত্মার মায়া কি, মনের মানুষ কি, সত্যিকারের নিখাদ ভালোবাসা কি – বুঝতে জানি না । কারণ, পশুর ন্যায় হয়ে আছি শুধু মানুষ রুপে । তাই, মনের এ তাগিদ থেকে প্রতিবাদ স্বরূপ আমার এই কাব্যগ্রন্থটি প্রকাশ করা । এটি সৌদি প্রবাসী লেখক শাহীনুর এর তৃতীয় কাব্যগ্রন্থ “মায়ায় পোড়ে মাটির মানুষ” ।

এবারের অমর একুশে বই মেলায় লেখকের নবম গ্রন্থ “মায়ায় পোড়ে মাটির মানুষ” বইটি প্রিয় বাংলা প্রকাশনীর ২০১ ও ২০২ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে ।

লেখক শাহীনুর একজন জীবনবোধের কবি । সাহিত্যে সর্বপ্রথম কবিতা দিয়ে তার লেখালেথি শুরু হলেও উপন্যাসও লিখছেন সমানতালে । তরুন এই লেখকের জন্ম বাংলাদেশের মুন্সীগন্জের শ্রীনগরের বাঘড়া গ্রামে । পিতা ইউনুস মৃধা, মাতা শেখ শাহানারা বেগম ।

এশিয়ান জার্নালিষ্ট হিউম্যান রাইটস এন্ড কালচারাল ফাউন্ডেশন পূর্বাঞ্চল শাখা, সাংস্কৃতিক সংগঠন স্যাডো, রিয়াদ মহিলা কমিনিটিসহ বেশ কয়েকটি সম্মাননা পুরষ্কার পান প্রেম ও মানবতার এই লেখক । মুক্তচিন্তার এই কলম সৈনিকের সাক্ষাতকার ও প্রতিবেদন প্রচার করেছে বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ও পত্রিকা ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *